বাংলা সিরিয়াল

‘জনপ্রিয়তা হারিয়ে ফেলার ভয় আমার নেই’! রোহনের সাথে দীর্ঘ ৫ বছরের সম্পর্কের ব্রেক আপের পর এখন কার সাথে ডেটিং করছেন মনফাগুনের সৃজলা? এক সাক্ষাৎকারে জানালেন নিজের মুখেই

স্টার জলসার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মন ফাগুন। এই ধারাবাহিকের অভিনেত্রী সৃজলা গুহ মেক্সিকোর মেয়ে। পিহু চরিত্র করে তিনি তার প্রথম কাজেই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন। ১৭ বছর বয়সে তিনি প্রথম মডেলিং শুরু করেন, তার কথায়, “আমার দিদিমা মেক্সিকান‌। বাবার ব্যবসা দার্জিলিঙে হাওয়ায় ছোটবেলায় অনেকটা সময় সেখানে কাটিয়েছি সেখান থেকে কলকাতায় আসা। ভারতের নানা প্রান্তে শো করেছি। একা থাকা একা ঘোরা আমার অভ্যেস।”

আরেকটি অভ্যাস আছে সৃজনার তা হলো হেসে ফেলা। কোন একটা মজার কথা শুনে এমন ভাবে হাসতে শুরু করেন সৃজলা যে অনেক সময় শট রিটেক করতে হয়। অভিনেত্রীর কথায়,“ এরকম অসংখ্য বার হয়েছে সিরিয়াস দৃশ্যের শুটিং চলছে কিন্তু সেটের মধ্যে এমন কোন কথা শুরু হলো যা নিয়ে আমি হেসেই চলেছি। এত হাসছি যে বারবার রিটেক হচ্ছে।”

ধারাবাহিকের সুদর্শনা অর্থাৎ গীতশ্রী রায়ের সাথে তার বন্ধুত্বের কথা সকলেই জানে এই প্রসঙ্গে সৃজলা বলেন,“জীবনে খারাপ সময় কাটিয়ে উঠতে গীতশ্রী আমাকে প্রচন্ড সাহায্য করেছে। মেকআপ রুমে আমাকে খাইয়ে দেওয়া থেকে শুরু করে সব খুঁটিনাটি বিষয়ে ওর কড়া নজর থাকে। আমাদের দুজনের আলাদা জগত রয়েছে। কিন্তু যখন একে অপরের পাশে দাঁড়ানোর দরকার পড়ে, পরস্পরকে পেয়ে যায়”।

রোহন ভট্টাচার্যের সাথে তার পাঁচ বছরের একটি সম্পর্ক ছিল কিন্তু সেই সম্পর্ক ভেঙে বেরিয়ে এসেছেন অভিনেত্রী, এ প্রসঙ্গে অভিনেত্রী বলেন “দু’বছর আগেই আমাদের সম্পর্ক ভেঙে যাচ্ছিলো সম্পর্কে অনেক জটিলতা ছিল যেগুলো আমরা কারো সামনে আনতে চাইনি, তাই তিক্ততা না বাড়িয়ে শুধু বন্ধু হিসেবেই সম্পর্কটা বাঁচিয়ে রাখলাম। রোহন আজও আমার ভালো বন্ধু।” বর্তমানে তার জনপ্রিয়তা আকাশছোঁয়া, ঋষি পিহুর রসায়ন নিয়ে তো প্রতিমুহূর্তে চর্চা চলছে, কার সাথে ডেটিং করছেন অভিনেত্রী? এই প্রশ্নের উত্তরে অভিনেত্রী বলেন,“ আমি সিঙ্গেল‌। এই মুহূর্তে কাউকে ডেট করছি না কারণ আমার কাঁধে অনেক দায়িত্ব। পরিবারের প্রতি দায়িত্ব রয়েছে। বাবা-মা দার্জিলিং এ থাকেন তাদের বয়স হয়েছে। সেই সঙ্গে বাড়িতে পোষ্য তিনটে কুকুর ও একটা বিড়াল আছে। রাস্তার কুকুর-বিড়ালকেও নিয়মিত খাওয়ায়। এই কাজটা আরো বড় পর্যায়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা চলছে এইগুলোই এখন আমার কাছে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।”

Back to top button