বাংলা সিরিয়াল

‘বৌকে আইসক্রীমের মধ্যে কী করে আংটি গিফট করতে হয় মিঠাই দেখে শিখেছি’- মিঠাই ভক্তের আমুদে পোস্ট কে ঘিরেই ফের ট্রোলিং এর শিকার হলো মিঠাই!

নিজের পছন্দের ধারাবাহিক নিয়ে ভক্তরা যেমন নানান রকম প্রশংসা করেন তেমনি নিজেদের পছন্দের ধারাবাহিককে কেউ সমালোচনা করলে ভক্তরা তেড়ে আসেন। আবার কখনো কখনো নিজেদের পছন্দের ধারাবাহিক নিয়ে ভক্তরাই একটু মজা মশকরা করেন নিজেদের মধ্যে, আসলেই মজা মশকরা তারা করেন নিজেদের একটু আমোদের জন্য। কিন্তু কখনো কখনো এই আমোদের জন্য নিজের প্রিয় ধারাবাহিককে নিয়ে মজা মশকরার ফলে ধারাবাহিকের হেটাররা ওই বিষয়টি নিয়ে ধারাবাহিককে নিয়ে ট্রোল করতে শুরু করেন। সম্প্রতি যেমনটা হয়েছে জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক মিঠাইয়ের ক্ষেত্রে।

মিঠাই অত্যন্ত জনপ্রিয় সিরিয়াল একথা বলাই বাহুল্য। ১ বার বা ২ বার নয়, একাধিকবার মিঠাই সিরিয়াল বঙ্গ সেরা হয়েছে, এতবার যখন এই ধারাবাহিক বঙ্গ সেরা হয়েছে তখন বুঝে নিতেই হয় এই ধারাবাহিকের মধ্যে এমন কিছু আছে যা প্রচুর পরিমাণে মানুষ পছন্দ করেন। তা হলো এই ধারাবাহিকের সদস্যদের মধ্যে বন্ডিং, এই ধারাবাহিকের পজেটিভ গল্প, এই ধারাবাহিকের মধ্যে প্রতিটা ট্রাক খুব দ্রুত শেষ করার মানসিকতা যা অন্যান্য ধারাবাহিকে চোখে পড়ে না এবং সেই কারণেই এই ধারাবাহিকটি অন্যান্য ধারাবাহিকের থেকে আলাদা। সবশেষে এই ধারাবাহিকের সবথেকে বড় গুণ হলো এই ধারাবাহিকে কোনরকম পরকীয়া দেখানো হয় না।

কিন্তু এই এত ভালো জিনিস গুলি ছেড়ে সম্প্রতি একজন দর্শক তার নিজের পছন্দের মিঠাই ধারাবাহিক নিয়ে মজা করে একটি বিষয় লিখেছেন, তা হলো, “মিঠাই আমার কাছে একটা খুবই শিক্ষণীয় সিরিয়াল

কেনো????

কারণ এখান থেকে আমি শিখেছি কি করে বৌকে আইসক্রীম এর মধ্যে করে আংটি গিফট করতে হয় আর কফিতে মিষ্টি কম হলে কিভাবে মিষ্টি দিয়ে দিতে হয় …

ভবিষ্যতে কাজে লাগবে…”- ব্যস এইবার এই বিষয়টা নিয়ে বিরোধী পক্ষ ট্রোল করতে শুরু করে দিয়েছেন, তারা বলছেন এই কারণেই মিঠাই আমাদের একেবারেই পছন্দ হয় না যত রকম ন্যাকামোপনা!

Back to top button