বাংলা সিরিয়াল

লক্ষ্মী জানতে পারবে তার ছেলে দুলাল আর হাসের আসলে কোনদিন বিয়েই হয়নি! তারপর? হাসকে কি বের করে দেবে লক্ষী কাকিমা? টানটান উত্তেজনা তৈরি হয়েছে লক্ষ্মী কাকীমা সুপারস্টারে

জি বাংলার জনপ্রিয় ধারাবাহিক লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার। টিআরপি রেটিংয়ে ভালো ফলাফল করে এই ধারাবাহিক, স্লটলিড করে এই ধারাবাহিক। ধারাবাহিকে বিভিন্ন সময় নানান রকম সমস্যার সৃষ্টি হয় এবং লক্ষ্মী কাকিমা সেগুলোকে নিজের জাদুতে সমাধান করে যেমন ইস্ত্রী না থাকলে অভিনব উপায় নিজে জামা কাপড়ের উপর বসে জামাকাপড় ইস্ত্রি করে লক্ষ্মী কাকিমা। আবার নিজের শ্বশুরবাড়ির প্রমোটিং আটকানোর জন্য লক্ষী কাকিমা মা তারার অবতার সেজে হাজির হয় বাড়িতে।

নিজের নতুন বাড়িতে প্রেসার কুকার না থাকায় প্রেসার কুকার জিততে হাজির হয় জি বাংলার দিদি নাম্বার ওয়ান এর মঞ্চে এবং সেখানে প্রেসার কুকার তো জেতেই এমনকি দিদি নাম্বার ওয়ান এর মঞ্চে জিতে অনেক কিছু উপহার হিসেবে পায় লক্ষী কাকিমা। লক্ষ্মী কাকিমা সুপারস্টার এর সাম্প্রতিক কালের ভিডিওতে দেখা গিয়েছিল যে লক্ষ্মী কাকিমার বিবাহ বার্ষিকী পালন করছে তার বৌমা হংসিনী ও দুলাল।

লক্ষ্মী কাকিমার সিঁথিতে পরিয়ে দিচ্ছে তার স্বামী, আর তাকে বিবাহ বার্ষিকীর শুভেচ্ছা জানাচ্ছে। এমন সময় দুলালকে বলা হয় যে সে তো পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করেছে তাই আজ সকলের সামনে হংসিনী সিঁথিতে সিঁদুর দিতে। কথাটা শুনে ভয় পেয়ে যায় হংসিনী আর দুলাল । লক্ষ্মী কাকিমা নিজে দুলালকে বলে কি হলো পরিয়ে দে! তখন দুলালের হাত কাঁপতে থাকে হাতের থেকে সিঁদুরের কৌটা পড়ে যায়। এমন সময় হংসিনীর বাবা এসে বলে সিঁদুর পড়াবে কি করে? ওদের তো আসলে কোনোদিন বিয়েই হয়নি। প্রোমোর ট্যাগ লাইন হলো লক্ষী কাকিমা সুপারস্টারে দেখুন কঠিন সত্যের মুখোমুখি লক্ষী। এই সত্যি জানতে পারার পর লক্ষ্মী কাকিমা কী করবেন! তিনি কি তার আদরের হাস কে বাড়ি থেকে বের করে দেবেন? লক্ষ্মী কাকিমার সিদ্ধান্ত দেখবার অপেক্ষায় বসে আছেন দর্শক।

Back to top button