বাংলা সিরিয়াল

ধারাবাহিক নিয়ে উঠছে একের পর এক খিল্লির ঝড়, টিআরপি ঠেকেছে তলানিতে! এরই মধ্যে গুড্ডি খুলে ফেলল তাঁর নতুন ইউটিউব চ্যানেল, তবে কি নিজের অর্থের প্রয়োজন মেটাতে? এদিকে ইউটিউবের প্রথম ভিডিও সুপার হিট

বর্তমানে এমন সময় এসে দাঁড়িয়েছে যেখানে ইউটিউব অর্থ উপার্জনের একটা বড় প্লাটফর্ম হয়ে গিয়েছে। অল্প বয়সী ছেলেমেয়েরা বেশিরভাগ নিজেদের একটা করে ইউটিউব চ্যানেল খুলে রাখেন। কারণ তাদের ধারণা তারা তাদের পছন্দের ইউটিউবারর মত নিজেদের জন্যও প্রচুর অর্থ উপার্জন করে বিলাসবহুল জীবন যাপন করবেন। কিন্তু আর যাই হোক প্রত্যেকটি প্লাটফর্মে কাজ করতে হলে কাজটি সম্পর্কে যথেষ্ট জ্ঞান থাকা বাঞ্ছনীয়। সেই জন্যই সকলে হয়তো ইউটিউবে দাঁড়াতে পারেন না। হ্যাঁ তবে এটা ঠিক যে ভারতে ইউটিউবারের সংখ্যা দিন দিন বাড়ছে। একথা অস্বীকার করার কোন জায়গা নেই।

সাধারণ মানুষেরা তো বটেই ইউটিউবের জগতে বাদ পড়ছেন না সেলিব্রেটিরাও। তাঁরাও নিজেদেরকে জনপ্রিয়তাকে ব্যবহার করে ইউটিউবে লক্ষাধিক সাবস্ক্রাইবার পেয়েছেন। বলিউড থেকে টলিউড সর্বত্র এই ইউটিউব চ্যানেলের সংখ্যা কম নয়। বলিউডের বড় পর্দা থেকে ছোট পর্দা সবেতেই ইউটিউব বিরাজ করছে। বলিউডের বড় পর্দার আলিয়া ভাট, কৃতি শ্যানন বেশ রমরমে তাঁদের ইউটিউব চ্যানেল চালাচ্ছেন। আবার বলিউডের ছোট পর্দার মধ্যে এরিকা ফার্নান্ডেজ, হিনা খান নিজেদের ইউটিউব চ্যানেল চালাচ্ছেন বেশ ভালো মতোই। তেমনি টলিউডের ও বেশ কয়েকজন অভিনেত্রী নিজেদের ইউটিউব চ্যানেল চালাচ্ছেন। যেমন রুকমা রায়, তন্বী লাহা রায় তাঁদের ইউটিউব চ্যানেল ভালো মতই চালাচ্ছেন। আসলে ইউটিউব চ্যানেলে যেহেতু অভিনেতা অভিনেত্রীদের একদম আনফিল্টার অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায় তাই দর্শকম লুকিয়ে থাকেন তাঁদের দেখার জন্য। মিঠাই ও নিজের ইউটিউব চ্যানেল খুলেছিল তবে সময়ের অভাবে সেই ভিডিও দিতে পারে না। তবে যেটুকু ভিডিও সে দিয়েছে তাতে বেশ ভালই ভিউজ আছে।

এবার নিজের একটি ইউটিউব চ্যানেল খুলে ফেললেন সকল দর্শকদের প্রিয় গুড্ডি। যদিও চ্যানেলটি অভিনেত্রী খুলেছিলেন বেশ কিছুদিন আগেই। তবে শ্যামৌপ্তীর এই চ্যানেল দর্শক বেশ পছন্দ করেছেন। সেখানে ঠিকঠাক করো ইউটিউব ভিডিও ছিল না, ছিল শুধুই শটস। তবে এবার অভিনেত্রী পোস্ট করলেন একটি গোটা ঠিকঠাক ইউটিউব ভিডিও।

অভিনেত্রী প্রথম ভিডিওতেই দেখতে পাওয়া গেল ছুটির দিন অভিনেত্রী সারাটা দিন কিভাবে কাটান। এটাই ছিল অভিনেত্রীর প্রথম ভ্লগের বিষয়। সেখানেই দেখা গেল অভিনেত্রী ছুটির দিনে সকাল বেলা ঘুম থেকে উঠে ব্যালকনিতে গিয়ে বসেন এবং কফি বিস্কুট খান। দুপুরে ব্রাউন রাইস, সবজি, ডাল খান। আর একজন বান্ধবী আসে, তার সাথে তিনি সারাটা দিন সময় কাটান। তারপরে রাতে তিনি সব সবজি দিয়ে একটি সুপ খান। অভিনেত্রীর এই ভিডিও দেখে দর্শক বেশ পছন্দ করেছেন। ইতিমধ্যেই ৩০ হাজারের বেশি ভিউজ পেয়ে গিয়েছেন অভিনেত্রী এই ভিডিও। আর কমেন্টেও ভালবাসা দেখিয়েছেন দর্শক। অন্যদিকে চ্যানেলের সাবস্ক্রাইবার মাত্র ২০০০ ছাড়িয়েছে। তবে দিন দিন সাবস্ক্রাইবার সংখ্যা বাড়বে সেটা আমরা সকলেই জানি। তাই নতুন ইউটিউব চ্যানেলের প্রেক্ষিতে শুভেচ্ছা বার্তা রইল অভিনেত্রীর জন্য।

Back to top button