বাংলা সিরিয়াল

‘গৌরী এলো পুরো গাঁজা স্টোরি’! মহাদেব আপনাদের দিয়ে ঈশানের মায়ের গর্ভে ঈশান হয়ে এসেছেন! গৌরী এলোর স্বপ্নাদেশ পর্ব প্রকাশ্যে আসতেই ট্রোলের শিকার এই ধারাবাহিক!

দেব দেবীকে নিয়ে গড়ে ওঠা গল্প দর্শক পছন্দ করেন কিন্তু ‌ তার মধ্যেও কিছু ভিন্নতা রয়েছে। পুরোপুরি পৌরাণিক হলে সেই গল্পের একটা আলাদা চাহিদা থাকে কোন দেব দেবীর ভক্তকে কেন্দ্রিক গল্প হলে সেই ধারাবাহিকের একটা আলাদা চাহিদা থাকে আবার কোথাও যদি দেখানো হয় যে, দেবীর আশীর্বাদ ধন্য কোন চরিত্র অর্থাৎ ছায়া দুর্গা চরিত্র , সেই গল্প নিয়েও দর্শকদের একটা অন্যরকম ভাবনা থাকে- যেমনটা হয়েছিল দুর্গা , বেহুলা ধারাবাহিকের ক্ষেত্রে।

কিন্তু কোন একজন সাধারণ মানুষ যার মধ্যে সাধারণ মানুষের মতো চাহিদা রয়েছে সংসারের প্রতি আসক্তি রয়েছে এবং যে ভীষণভাবে সংসারী সেরকম কোন চরিত্রকে যদি পুরোদস্তুর ভগবান হিসেবে তুলে ধরা হয় এবং তাকে ভগবানের আসনে বসিয়ে রীতিমতো আরতি করা হয় তাহলে এই বিষয়টি মেনে নিতে দর্শকদের একটু কষ্ট করতে হয়- কারণ এই ধারণার সাথে দর্শক খুব বেশি কাল ধরে পরিচিত নয়। দেবীর আশীর্বাদ ধন্য চরিত্র তারা বিগত কয়েক দশক ধরে অনেক ধারাবাহিকে দেখেছে কিন্তু পুরোপুরি দেবী চরিত্র মর্ত্যভূমিতে এসে বরের সাথে রোমান্স করছেন এটা মেনে নিতে বেশ কিছু মানুষের অসুবিধা হয়, ধর্মীয় দৃষ্টিকোণ থেকেই এই অসুবিধাটা তৈরি হয়।

কারণ দেবী মানেই যাবতীয় চাহিদার ঊর্ধ্বে তিনি থাকেন সেখানে একজন চরিত্র কে প্রথম থেকে পুরোদস্তুর সংসারী দেখানোর সাথে সাথে তাকে সাক্ষাৎ দেবী রূপে দেখানোটা জি বাংলার গৌরী এলো ধারাবাহিকেই প্রথম লক্ষ্য করা যায়। তাই প্রচুর মানুষ এই ধারাবাহিকের বিষয়বস্তু নিয়ে ট্রোল করেন। বর্তমানে দেখা যাচ্ছে যে মহাদেব ঈশানের মা কে স্বপ্ন দিয়েছিলেন ঈশান জন্মের পূর্বে যে তিনি তার সন্তান রূপে আসবেন!-এই বিষয়টা দর্শকরা ঠিক মেনে নিতে পারছেন না।

একজন নেটিজেন তাই এই বিষয়টির সমালোচনা করে লিখেছেন,“ ঈশানের মাকে স্বপ্নাদেশ দিয়েছিলেন স্বয়ং দেবাদিদেব মহাদেব ঈশান নাকি ভগবান শিবের অংশ গৌরী মা কালীর অংশ গৌরী এলো এনাদার লেভেলে চলে গেছে গল্পকারের গাঁ জা স্টোরি #গৌরিএলো”

Back to top button