বাংলা সিরিয়াল

‘বয়সে বড় নায়িকার ১৩ বছরের মেয়ে আছে আর হাঁটুর বয়সী নায়কের প্রেম! গোধূলি আলাপের ঈর্ষণীয় জনপ্রিয়তা দেখেই কি অসম বয়সী এই গল্প আনছে কালার্স বাংলা? প্রশ্ন নেটিজেনদের’

অসমবয়সী প্রেমের গল্প নিয়ে শুরু হয়েছিল ধারাবাহিক গোধূলি আলাপ, শুরুতে এই ধারাবাহিকের গল্প তুমুল সমালোচিত হলেও ধারাবাহিক শুরু হওয়ার অল্প কিছুদিনের মধ্যেই দেখা গেল অসম বয়সী এই প্রেমের গল্প দর্শকদের মনোরঞ্জন করে নিয়েছে, এমনকি টিআরপিতেও বেশ ভালো ফল করেছে এই ধারাবাহিক! বেশি বয়সের উকিলবাবু সকলের চোখে আদর্শ জামাই হয়ে উঠেছেন! সেই থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই কি অসমবয়সী প্রেমের গল্প নিয়ে শুরু হচ্ছে নতুন ধারাবাহিক! নতুন এই ধারাবাহিকের দৌলতেই ফিরে আসছেন একসময়কার জনপ্রিয় অভিনেত্রী অঙ্কিতা চক্রবর্তী।

হ্যাঁ বহুদিন পর ছোটপর্দাতে কাজ করতে চলেছেন অভিনেত্রী অঙ্কিতা চক্রবর্তী। শেষবারের মতো তাকে ইষ্টিকুটুম ধারাবাহিকে দেখা গিয়েছিল। সাম্প্রতিক সময়ে অভিনেতা প্রান্তিক ব্যানার্জিকে বিয়ে করার কারণে তিনি খবরের হেডলাইন হয়ে গিয়েছিলেন। ইদানিং প্রচুর ফটোশুট, ওয়েব সিরিজ ও সিনেমায় কাজ করলেও ছোটপর্দাতে সেভাবে দেখা মেলেনি তার। তবে এইবার সম্পূর্ণ নতুন একটি গল্প নিয়ে নতুন রূপে ছোট পর্দায় ফিরছেন অঙ্কিতা চক্রবর্তী। আগের থেকে অনেকটা ওজন জড়িয়েছেন তিনি, হয়ে উঠেছেন আরও কিছুটা গ্ল্যামারাস। এইবার এই নতুন রূপে কালার্স বাংলার ‘ইন্দ্রানী’ ধারাবাহিকে ফিরছেন অঙ্কিতা।

ইতিমধ্যে ধারাবাহিকের প্রোমো দেখিয়ে দিয়েছে সেই প্রোমতে দেখানো হচ্ছে যে ইন্দ্রানী একটি হসপিটালের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার হিসেবে কাজ করেন। তার একটি বছর তেরোর মেয়ে রয়েছে। মা মেয়েকে খুব ভালো বাসলেও মেয়ে কিন্তু তার মাকে একেবারেই সহ্য করতে পারে না। কারণ মেয়ের ধারণা, তার বাবা তার মায়ের জন্যই তাদেরকে ছেড়ে চলে গিয়েছে। অন্যদিকে ডিভোর্সি হওয়া সত্ত্বেও ইন্দ্রানীকে দেখা যাচ্ছে শ্বশুর বাড়িতে থেকে শ্বশুর শাশুড়ির দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে। সংসারের খরচ‌ও বহন করে সে, তার শাশুড়ি মা তাকে ভীষণ ভালোবাসেন তবে তার জেঠি শাশুড়ি তাকে একেবারেই পছন্দ করেন না।

এরপর হাসপাতালে তাকে ঢুকতে দেখেই তার প্রেমে পাগল হয়ে যায় অল্প বয়সী একজন ডাক্তার। ডাক্তারকে একজন বলে, স্যার বয়সে আপনার থেকে অনেক বড়ো। ১৩ বছরের একটি মেয়েও আছে, ডাক্তার তখন বলে ধুর পাগলা প্রেম কি আর বয়স মানে রে? এরপর বয়সে বড় নায়িকা এবং বয়সে ছোট নায়ককে ঘিরে এই গল্প। এর আগে বয়সের এই পার্থক্য নিয়ে হিন্দিতে অনেক সিরিয়াল হয়েছে, বাংলায় কিছুদিন আগেই গোধূলি আলাপ ধারাবাহিক তৈরি হয়েছে, তবে সেখানে নায়ক-নায়িকার থেকে বয়সে বড়, এখানে তার উল্টো। অভিনেত্রী কালার্স বাংলার তরফ থেকে শেয়ার করা এই ধারাবাহিকের প্রোমো শেয়ার করেছেন। যেখানে লেখে আছে,“ ছেলে বড়, মেয়ে ছোট প্রেম হয়েই থাকে! কিন্তু মেয়ে যেখানে বড় আর ছেলে ছোট সেখানে? ভালোবাসা কি সত্যিই বয়স দেখে হয়?”

নেটিজেনরা এই ধারাবাহিকটিকে লাইট গোধূলি আলাপ বলে দাবি করলেও চ্যানেল কর্তৃপক্ষ কিন্তু বলেছেন, গতে বাঁধা মিষ্টি প্রেমের গল্প এটি নয়। তবে কেমন হবে এই গল্প? জানতে গেলে চোখ রাখতে হবে এই ধারাবাহিকে।

Back to top button