শুভেন্দুর অনুগামীদের বাড়িতে ভাঙচুর,সভায় যোগ দেওয়ায় শাসকদলের আক্রোশ কোলোন্দায়

শুভেন্দু অধিকারীর পদত্যাগ নিয়ে এতদিন প্রচুর জল্পনা চলার পর অবশেষে দিন কয়েক আগে তিনি ছেড়েছেন তার মন্ত্রীত্ব৷ তবে দল যে এখনও ছাড়েননি তা স্পষ্ট৷ কিন্তু এরই মধ্যে তলে তলে শুরু হয়ে গিয়েছে তৃণমূলের সাথে শুভেন্দুর ঠাণ্ডা লড়াই৷ অন্তত এমনটাই ধারণা করা হচ্ছে শুভেন্দুর অনুগামীদের তরফে৷

গতকাল শুভেন্দু অধিকারীর একটি সভা অনুষ্ঠিত হয়,সেখানে অংশ নেন তার অনুগামীদের একাংশ৷ এই কারণেই তাদের বাড়িতে ভাঙচুর চালায় বলে অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে৷ শুধুমাত্র ভাঙচুরই নয়,সাথে চলে তুমুল বোমাবাজি৷ সোমবার ঘটনাটি ঘটে পশ্চিম মেদিনীপুরের সবংয়ের কোলোন্দা এলাকায়৷ তৃণমূল নেতৃত্ব অবশ্য এই অভিযোগ ভুঁয়ো বলে উল্লেখ করেছেন৷ রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রীর সভায় যোগ দেওয়াই কি ছিলো এই সমস্ত তাণ্ডবলীলার পিছনে থাকা একমাত্র কারণ? এমনকি ওই এলাকা থেকে উদ্ধার হয়েছে একটি তাজা বোমাও৷

তৃণমূলের অবশ্য দাবী যে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বই এই ঘটনার পিছনে থাকা একমাত্র কারণ৷ অন্যদিকে এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বিজেপির বক্তব্য যে বাংলায় আসলে এখন শুভেন্দু অধিকারীর সাথে শাসকদলের একরকম লড়াই চলছে আর সেই সত্যতাকে আড়াল করতেই তৃণমূল বিজেপিকে আক্রমণ করছে,এছাড়া আর কিছুই নয়৷ তবে জানিয়ে রাখা ভালো যে শুভেন্দু এদিন উদ্বোধনী সভায় তীব্র কন্ঠে জানান যে তিনি একসাথেই ভালো থাকেন, সবক্ষেত্রেই নন্দীগ্রামে আসেন তিনি৷ আগেও তিনি বরাবরই আসতেন এবং আগামী দিনেও সভার পাশে থাকবেন৷

এছাড়াও এদিন প্রাক্তন মন্ত্রী নন্দীগ্রামের একটি রাসমেলার অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেন এবং গলায় খোল নিয়ে নৃত্যও করেন৷ তারপর উদ্বোধনী সভাটি করেন ,কিন্তু রাজনীতি সম্পর্কিত কোনো বার্তা তিনি দেননি৷ তবুও এই সভার জেরেই অনুগামীদের বাড়ি ভাঙচুর বলে দাবী করা হয়েছে৷