ভাইরাল

“ইচ্ছা হয়েছে তাই মদ খেয়েছে, দয়া করে পরীমনিকে ছেড়ে দেয়া হোক”, কাতর আর্জি সুপারহিট হিরো আলমের!

সম্প্রতি বাংলাদেশ খ্যাত অভিনেত্রী পরীমনি মাদক কাণ্ডের জেরে পুলিশি হেফাজতে। বেশ কয়েকদিন আগেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই ব্যাপারটিকে কেন্দ্র করে রীতিমতো উত্তাল হয়ে রয়েছে বাংলাদেশের চলচ্চিত্র জগতের সকলেই। অনেকেই কখনো প্রকাশ্যে আবার কখনো গোপনে অভিনেত্রী পরিমনির শাস্তির কথা দাবি করেছেন। অভিনেত্রীর এই অবস্থার দরুন কেউ কেউ অভিনেত্রী অভিনয় ক্যারিয়ারে স্থায়িত্ব নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ।

পরীমনিকে ঘিরে এই ঘটনার ব্যাপারে সম্প্রতি মুখ খুললেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় গায়ক হিরো আলম। হিরো আলম বাংলাদেশের একজন প্রতিষ্ঠিত গায়ক।

পরীমনি এবং হিরোআলোমের কর্মক্ষেত্র আলাদা হলেও একে অপরের প্রতি সহানুভূতিশীল এবং দুজনের মধ্যে যে ভালোবাসা রয়েছে তার প্রমাণ মিলল এই থেকেই। সম্প্রতি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন পর্ষদের এসে এমনই মনের ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন হিরো আলম।

সংগীতশিল্পী হিরো আলমের বক্তব্য মানুষ মাত্রই ভুল হয়। অভিনেত্রী পরিমনির কাছে রয়েছে মদের লাইসেন্স তাই ইচ্ছে হয়েছে মদ খেয়েছেন তিনি, এমনই বক্তব্য রেখেছেন গায়ক হিরো আলম।

এখানেই শেষ নয় তিনি আরো বলেছেন যারা অভিনেত্রীকে মদের সাপ্লাই দিয়েছে তাদেরই ধরা উচিত। একজন মানুষ হিসাবে অন্তত একটিবার সুযোগ দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন সঙ্গীতশিল্পী হিরো আলম।

অনেক ছোটবেলাতেই মাকে এবং বাবাকে হারিয়ে ছিলেন অভিনেত্রী পরীমনি। তারপর নিজের দাদুর কাছেই মানুষ হন তিনি। অভিনেত্রী হয়ে ওঠার পথ খুব একটা সহজ ছিল না তার কাছে। অপরদিকে গায়ক হিরো আলমের রয়েছে একাধিক কটুক্তি। হিরো আলমের শরীরের গঠন এবং তার নিয়ে চর্চার অন্ত নেই।

প্রথমে ইউটিউবে নিজের ভিডিও প্রকাশ করেই হিরো আলম প্রবল কটূক্তির শিকার হয়েছিলেন। পরিমনির সম্বন্ধে হিরো আলম এর এরূপ মন্তব্যের প্রভাব পড়েছে গোটা দেশে। অনেকেই হিরো আলমের এই বক্তব্যকে সমর্থন জানিয়েছেন আবার অনেকের এও জানিয়েছেন যে দোষী অপরাধের জন্য শাস্তি পাবেই এসে যদি সেলিব্রিটি ও হয় তা বলে তাকে ছেড়ে দেওয়া যাবে না।

Back to top button