ভাইরাল

ভোজপুরি ভাষাতেও হিট ‘কাঁচা বাদাম’, আবারো চর্চায় ভুবন বাদ্যকর! তুমুল ভাইরাল ভিডিও

আগের বছর শেষের দিকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বীরভূমের বাসিন্দা ভুবন বাদ্যকরের সাথে পরিচয় হয়েছিল নেটনাগরিকদের। ভুবনবাবু ব্যবসার খাতিরে অভিনব পদ্ধতিতে গান গেয়ে বাদাম বিক্রি করতেন। ক্রেতাদের আকর্ষণ করার জন্যই গান গাইতেন তিনি। তবে হঠাৎ করেই তিনি ভাইরাল হয়ে যান নেটদুনিয়ায়। ক্রেতাদের মধ্যে কেউ একজন ভুবনবাবুর সেই গান গাওয়ার ভিডিও রেকর্ড করে সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় শেয়ার করে দিয়েছিলেন। আর তারপর থেকেই তিনি নেটিজেনদের কাছে বাদাম কাকু হয়ে গিয়েছেন। তার এই জনপ্রিয়তা তার ব্যবসায় ক্ষতি করেছে প্রচুর, তা তিনি নিজেই জানিয়েছেন। তার কথায় জনপ্রিয় হওয়ার পর থেকেই সকলে এসে তার গান শুনে চলে যান। কিন্তু তার কাছ থেকে কেউ আর বাদাম কেনেন না। পরে অবশ্য অনেকেই তার অসহায়তা দেখে তার দিকে বাড়িয়ে দিয়েছেন সাহায্যের হাত।

বর্তমানে বাদাম কাকুর পরিচিতি এখন সুদুরপ্রসারী। তিনি পরিচিত হয়েছেন সুদূর দক্ষিণ আফ্রিকাতেও। সেখানকার সঙ্গীত পরিচালক দা কিফনেস বাদাম বাবুর গানের সাথে রিমিক্স বানিয়েছেন। ইতিমধ্যেই তরুণ প্রজন্মের গায়ক-গায়িকাদের সাথে ভুবনবাবু বিভিন্নভাবে নিজের গান রেকর্ড করেছেন। এবার ‘কাঁচা বাদাম’ গান তৈরি হল ভোজপুরি ভাষাতেও। সম্প্রতি সেই গানের মিউজিক ভিডিও মুক্তি পেয়েছে ইউটিউবে। সেই গানের মিউজিক ভিডিও শেয়ার হতেই নিমেষে ভাইরাল কাঁচা বাদামের ভোজপুরি ভার্সন। ‘কাঁচা বাদাম’ গানের পাশাপাশি ভুবনবাবুও সোশ্যাল মিডিয়ার ট্রোল কনটেন্ট। তা নেটদুনিয়ায় চোখ দেখলেই বোঝা যায়।

এবার ভোজপুরি ভাষায় ভাইরাল ‘কাঁচা বাদাম’। ভোজপুরি অভিনেতা রাকেশ মিশ্রা নতুনভাবে তৈরি করেছেন এই গান। নতুন এই মিউজিক ভিডিওতে গানের নাম দিয়েছেন ‘কাঁচা বাদাম লেলা’। এই মিউজিক ভিডিওতে রাকেশ মিশ্রা ছাড়াও দেখা মিলেছে রবি পন্ডিত ও শিল্পী রাগওয়ানির। ভোজপুরি ভাষাতে এই গান নতুনভাবে লিখেছেন, নরজনীশ চৌধুরী। গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন রাকেশ মিশ্রা ও নেহা রাজ। সম্প্রতি এই গান নেটিজেনদের মাঝে ভাইরাল হয়েছে।

এই ভিডিওটি ভোজপুরি ভাষায় তৈরি হওয়ার পর থেকেই আবারো চর্চায় উঠে এসেছেন ভুবনবাবু। ইতিমধ্যেই বহু মানুষ দেখে ফেলেছেন ভিডিওটি। গানটি শুনে রীতিমতো মানুষজন মজা পেয়েছেন, তা বলাই বাহুল্য। উল্লেখ্য, মিউজিক ভিডিওটি মজার ছলেই বানানো হয়েছে। এই মিউজিক ভিডিওটি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই বীরভূমের ভুবন বাদ্যকর পুনরায় ট্রোল হয়েছেন নেটনাগরিকদের মাঝে, তা নেটমাধ্যমের পাতায় চোখ রাখলেই স্পষ্ট হবে।

Back to top button