ভাইরাল

‘আমার কথার ভুল মানে বের করেছে আমি কেকে’র অন্ধভক্ত’, জনপ্রিয় গায়ক কেকে-র মৃত্যুর পর নিজের কথা অস্বীকার করলেন রূপঙ্কর বাগচী

গতকাল সকলকে কাঁদিয়ে অবাক করে দিয়ে মাত্র ৫৩ বছর বয়সেই অকালে চলে গেলেন সকলের প্রিয় গায়ক কেকে। কলকাতায় স্টেজ শো করতে এসে হঠাৎ হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু হলো জনপ্রিয় গায়ক এর। নজরুল মঞ্চে তিনি তখন মঞ্চ মাতাচ্ছেন দর্শকদের চিৎকার ভেসে আসছিল দূর থেকে। এরপর টানা কয়েক ঘণ্টা অনুষ্ঠান করার পর নিজের হোটেলে গিয়ে অসুস্থ বোধ করেন সিঁড়ি থেকে পড়ে গিয়ে হঠাৎই তার জ্ঞান হারিয়ে যায়। সঙ্গে সঙ্গে তাকে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। আর তারপরেই স্তব্ধ হয়ে যায় গোটা দেশ। কেকে র লক্ষ লক্ষ ভক্ত বুঝতে পারছিল না কি হয়ে গেল এটা তাদের সঙ্গে? কি হয়ে গেল তাদের প্রিয় গায়ক এর সঙ্গে।

কেকের মৃত্যুর পর থেকেই দুটি বিষয় খুব জল্পনা-কল্পনা হচ্ছে। একটি হলো কেকের কনসার্টের ঠিক আগের দিন রূপঙ্কর বাগচীর একটি বিস্ফোরক ভিডিও। যেখানে তিনি কেকে কে নিয়ে নানান ধরনের সমালোচনা এবং কটুক্তি করেছেন এবং দ্বিতীয়টি হলো নজরুল মঞ্চের ম্যানেজমেন্ট এর উপর আঙ্গুল উঠেছে বারবার। রূপঙ্কর বাগচী কে সাধারণত তুলোধোনা করছেন সোশ্যাল মিডিয়া নাগরিকরা। তবে এবার এই সমস্ত কিছু নিয়ে মুখ খুললেন রূপঙ্কর বাগচী।

রুপঙ্কর বাগচী জানান ‘দু:খ লাগছে, কষ্ট হচ্ছে। কেকে অত্যন্ত বড় মাপের শিল্পী ছিলেন। এটা ওঁর মৃত্যুর বয়স নয়। অতীতে অনেক মিউজিশিয়ান ছেড়ে চলে গিয়েছেন। ওর সেই বয়স নয়। তাঁর পরিবারের প্রতি আমার সমবেদনা রইল। আমি কেকে-র বিরুদ্ধে কিছু বলতে চাইনি। মানুষ বুঝতে না পারলে সত্যি খারাপ লাগবে। বাংলা গান, বাংলা সাহিত্য নিয়ে বলতে চেয়েছিলাম আমি। চিনিই না মানুষটাকে। ওঁর উপর কেন রাগ থাকবে। আমি ওঁর ভক্ত। আমার বক্তব্য নিয়ে কেউ অন্য কিছু ভেবে থাকলে সেটা তাঁদের ভুল।’ মঙ্গলবার কেকে কে নিয়ে বিস্ফোরক ভিডিও বানানোর পর থেকেই সকলেই রূপঙ্কর বাগচীর ওপর রাগে ক্ষোভে ফেটে পড়ছে। তাকে নিয়ে নানান ধরনের কথা হচ্ছে আর গায়ক এর মৃত্যুর পর রূপঙ্কর বাগচী কে একদমই কেউ সহ্য করতে পারছে না।

Back to top button