ভাইরাল

টালির বাড়িতে ফাঁকা ঘরে দাদু-নাতনির উদ্দাম নাচ! অশ্লীল নাচের ভিডিও ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়, ছি ছি করেছেন নেটিজেনরা

দাদু-দিদা কিংবা দাদু-ঠাকুমার সাথে নাতি-নাতনিদের একটা আলাদা ভালোবাসার সম্পর্ক থাকে। এখানে কোন স্বার্থ থাকেনা। আর সেই সম্পর্ক নিয়ে যদি কেউ অশ্লীল কোন কিছু করে থাকে তাহলে তাকে ছিছিকার দেবে সমাজ সেটাই স্বাভাবিক। সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় এক দাদু ও নাতনির তুমুল নাচের ভিডিও ভাইরাল হয়েছে, যা দেখে রীতিমতো রেগে গিয়েছেন নেটিজেনরা। তাদের নাচের মধ্যে অশ্লীলতা দেখে তাদের রীতিমতো কটাক্ষ করতে হয়েছে নেটনাগরিকদের একাংশের কাছে।

সম্প্রতি এক ভোজপুরী গানে দাদুর সাথে তুমুল নেচেছেন তার নাতনি। যে নাচে ছিল অশ্লীলতা। সম্প্রতি এই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে ইউটিউবের মাধ্যমে। দাদুর সাথে নাতনিরা কাটায় অনেক মজার মুহূর্ত, দাদুর কাছেই সমস্ত আবদার করে নাতনিরা। আর এই নির্ভেজাল, নিঃস্বার্থ সম্পর্ক নিয়ে রীতিমতো ছেলেখেলা করেছেন ভিডিওতে ভাইরাল হওয়া মেয়েটি। বলাই বাহুল্য, দাদু-নাতনির সম্পর্কের সাথে এই গানটি একেবারেই বেমানান। এই গান নষ্ট করছে এই পবিত্র সম্পর্কের মর্যাদা। এই ভিডিও নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই নেটিজেনদের অধিকাংশই ছি ছি করেছেন ভিডিওটি দেখে। ইতিবাচক মন্তব্য তো দূরের কথা সকলে তাদের রীতিমতো কটাক্ষ করে এই কাণ্ডের নিন্দা করেছেন।

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়ায় কোন কিছুই ভাইরাল হতে বিশেষ সময় লাগে না। ভালো হোক কিংবা খারাপ তা যদি প্রত্যক্ষ কিংবা পরোক্ষভাবে নেটনাগরিকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে তাহলে সেই ভিডিও কিংবা ছবি ভাইরাল হবে, তার এতদিনের স্পষ্ট হয়েছে সকলের কাছেই। সোশ্যাল মিডিয়ায় যে সমস্ত ভিডিও কিংবা ছবি ভাইরাল হয় তার বেশির ভাগটাই বিনোদনের স্বার্থে। কিন্তু এমন অনেক কিছুই সোশ্যাল মিডিয়ার পাতায় ভাইরাল হতে দেখা যায় যা হয়ত কাম্য নয়।

শুধুমাত্র ভিউজ পাওয়ার জন্য কিংবা ভাইরাল হওয়ার জন্যই অনেকে অশ্লীল ভিডিও বানিয়ে থাকেন। সেই সমস্ত ভিডিও কিংবা ছবি খুব স্বাভাবিকভাবেই নেটিজেনদের মধ্যে ভাইরাল হয় এবং ট্রোল কনটেন্ট হয়ে ওঠে। কিন্তু আসল লক্ষণীয় বিষয় হল শেষ পর্যন্ত তারা ভাইরাল হয়েই যান এই ধরনের ট্রোলের মাধ্যমে। তবে সেই চেনা পরিচিতি খুব সাময়িক। প্রতিভা না থাকলে কখনোই কেউ কাউকে মনে রাখেনা এটাই নিয়ম। সম্প্রতি যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে, সেই ভিডিওটি বানিয়ে যে তারা নিজেরা নিজেদেরই অপমান করেছেন, তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!
Back to top button