ভাইরাল

কালো পোশাকে উন্মুক্ত নাভি! খোলা আকাশের নীচে ফাঁকা ছাদে উদ্দাম নাচ হাওড়ার মেয়ের, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান যুগের সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের দৈনন্দিন জীবনের একটি গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ হয়ে উঠেছে। আজকের দিনে দাঁড়িয়ে মানুষের কাছে বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম হল সোশ্যাল মিডিয়া। বিনোদন মাধ্যম হওয়ার পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়া বর্তমান যুগের কাছে নিজেদের প্রতিভাকে সকলের সামনে তুলে ধরার একটা জনপ্রিয় প্ল্যাটফর্মও বটে। আজকের দিনে দাঁড়িয়ে অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে নিজের প্রতিভাকে পৌঁছে দিতে সক্ষম হন হাজার হাজার মানুষের সামনে। বর্তমান যুগে একসাথে বহু মানুষের সাথে সংযোগ স্থাপন করার জন্য মানুষ ব্যবহার করেন এই সোশ্যাল মিডিয়াকেই।

করোনা পরিস্থিতির জন্য দীর্ঘ লকডাউনে থেকেছেন মানুষ। আর এই সময় বহু মানুষ নিজেদের প্রতিভাকে সকলের সামনে তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই। কেউ লিখেছেন ব্লগ, কেউ বানিয়েছেন ভ্লগ, আবার কেউ নিজের শিল্পীসত্তাকে প্রকাশ করেছেন এই নেটদুনিয়াতেই। সম্প্রতি এক যুবতী বলিউডের জনপ্রিয় হিন্দি গান ‘মাইয়া মাইয়া’তে নৃত্য পরিবেশন করে মুগ্ধ করেছেন সকল নেটিজেনদের। সেই ভিডিও শেয়ার হওয়ার পর থেকেই ভাইরাল হয়েছেন নেটনাগরিকদের একাংশের মধ্যে।

সম্প্রতি যে ভিডিওটি ভাইরাল হয়েছে সেখানে সুচিস্মিতা সরকার নামের একটি মেয়েকে বলিউডের জনপ্রিয় ডান্স নম্বর ‘মাইয়া মাইয়া’তে জমিয়ে নাচতে দেখা গিয়েছে। তার নাচ দেখেই স্পষ্ট তিনি একজন যথেষ্ট দক্ষ নৃত্যশিল্পী। সম্ভবত নিজের বাড়ির ছাদেই ভিডিওটি শুট করেছেন এই বাঙালি কন্যা। এই গানে নাচার সময় কালো রঙের পোশাকে দেখা দিয়েছেন মেয়েটি। নিঃসন্দেহে মেয়েটিকে দেখতে খুবই সুন্দর লাগছিল।

নিজস্ব ইউটিউব চ্যানেলে নিজের নাচের এই ভিডিওটি শেয়ার করেছেন সুচিস্মিতা, আর তারপরেই সেটি ভাইরাল হয়েছে নেটিজেনদের একাংশের মধ্যে। হাওড়ার বাসিন্দা তিনি। ছোট থেকেই নাচের প্রতি আগ্রহ ছিল তার। সেই আগ্রহ থেকেই নাচ শেখার শুরু। বাঙালি মেয়ে সুচিস্মিতা সরকার নিজের প্রতিভাকে সকলের সামনে তুলে ধরার জন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে হাতিয়ার করেছেন। প্রশংসাও পেয়েছেন প্রচুর। বর্তমানে তার ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইবারের সংখ্যা ৪০ হাজারেরও বেশি। ইতিমধ্যেই নেটদুনিয়ার একাংশ তার অনুরাগী হয়ে উঠেছেন।

Back to top button