ভাইরাল

নিজের হাতে কালো কোবরাকে জল খাওয়ালেন এক মহিলা, হাড় হিম হয়ে যাওয়া ভাইরাল ভিডিও

বর্তমান যুগে সোশ্যাল মিডিয়া আমাদের জীবনের অন্যতম একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হয়ে দাঁড়িয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আমরা এমন অনেক ঘটনার সাক্ষী হয়ে থাকতে পারি যা হয়তো সচারচর আমরা আমাদের চারপাশে ঘটতে দেখি না। প্রতিদিন প্রতিনিয়ত অনেক ধরনের ভিডিও কিংবা ছবি ভাইরাল হতে দেখা যায় নেটদুনিয়ায়। তবে তাদের মধ্যে এমন কয়েকটি ভিডিও থাকে যা আমাদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারে। আবার অনেক সময় এমন কিছু ঘটনার সাক্ষী আমরা হই যা দেখে রীতিমতো শিউরে উঠতে হয়। সম্প্রতি নেটদুনিয়ায় তেমনই একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে।

বর্তমান যুগে প্রযুক্তি এগিয়ে গেছে অনেকটাই। আর এই প্রযুক্তির হাত ধরেই আমরা এমন অনেক ঘটনার সাক্ষী থাকি যা হয়ত আমাদের মত সাধারণ মানুষদের পক্ষে জানা সম্ভব নয়। বন্য জীবজন্তুকে ভয় পান না এমন মানুষ নেই বললেই চলে। তবে বর্তমানে আমরা বিভিন্ন চ্যানেলের মাধ্যমে সেই সমস্ত জীব জন্তুদের ব্যাপারে অনেক তথ্যই পেয়ে থাকি। আর আজকের দিনে দাঁড়িয়ে সোশ্যাল মিডিয়া সেক্ষেত্রেও একটা বড় ভূমিকা পালন করে।

গোটা পৃথিবীতে বিষধর প্রাণীদের মধ্যে অন্যতম হলো সাপ। আর এই সাপকে ভয় পান না এমন মানুষ মেলা ভার। বিষধর সাপেদের মধ্যে অন্যতম হলো কালো কোবরা। যার এক ছোবলেই মানুষ নিমেষে শেষ হয়ে যেতে পারে। সম্প্রতি গোটা নেটদুনিয়ায় সেই কালো কোবরাকে নিয়েই একটি ভিডিও তুমুল ভাইরাল হয়েছে নেটিজেনদের মধ্যে, যা দেখে রীতিমতো শিউরে উঠেছেন নেটিজেনদের একাংশ।

সম্প্রতি নেটদুনিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, এক ভয়ডরহীন মহিলা হাতে বিশেষ ধরনের গ্লাভস পড়ে একটি কালো কোবরাকে গ্লাসভর্তি জল নিয়ে নিজের হাতে খাওয়াচ্ছেন। বেশ কিছুক্ষণ ধরে ঐ গ্লাসটি কোবরার মুখের সামনে রাখার পরেই মুখ ডুবিয়ে নিশ্চিন্তে জল খেতে শুরু করে সে। দেখে বোঝাই যাচ্ছে এই মহিলার এই ধরনের কাজ করার নিয়মিত অভ্যাস রয়েছে। সম্প্রতি এই ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই এটি দেখে রীতিমতো শিউড়ে উঠেছেন নেটিজেনদের একাংশ। মহিলার সাহসীকতার প্রশংসা করার পাশাপাশি একাধিক নেটিজেনদের চোখ কপালে উঠেছে এই ভিডিও দেখে। এই ভিডিও নেটদুনিয়ায় শেয়ার হওয়ার সাথে সাথেই তা নিমেষের মধ্যে ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। খুব স্বাভাবিকভাবেই এমন ভিডিও নেট দুনিয়ায় শেয়ার হলে ততা ভাইরাল হবেই।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Royal Pythons (@royal_pythons_)

Back to top button