Story

বাড়ি-গাড়ি কিছুই নেই! কোনো কিছুই নেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের, জেনে নিন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তির হিসেব

২০২১ বিধানসভা ভোটে জিতে তৃতীয়বারের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর আসন দখল করলেন তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবছর বিধানসভা ভোটের নন্দীগ্রামে হারের মুখ দেখলেও বাকি জেলাগুলিতে বিপুল জয়ের মাধ্যমে তিনি আবারো বিজয়ীর মুকুট নিজের মাথায় তুলে নেন।

এরপর আবার ভবানীপুর কেন্দ্রের উপনির্বাচন হওয়ায় শুক্রবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে একটি মনোনয়নপত্র জমা দিতে হয়। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় নির্বাচন কমিশনের নিয়ম মেনে একটি হলফনামা জমা করতে হয়। যে হলফনামা থেকে স্পষ্ট জানা গিয়েছে বর্তমান রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী তথা ভবানীপুর বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর সম্পত্তির হিসেব।

হলফনামা অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার সময় মমতা বন্দোপাধ্যায়ের কাছে রয়েছে ৬২,৫৯০ টাকা নগদ। এর পাশাপাশি ব্যাংকের হয়েছে মোট ১৩ লক্ষ ১১ হাজার ৫১২.৭১ টাকা। ন্যাশনাল সার্টিফিকেট সেটিং এ রয়েছে ১৮৪৯০ টাকা। এর পাশাপাশি মুখ্যমন্ত্রীর নামে যে গয়না রয়েছে তার বাজার মূল্য হলো ৪৩,৮৩৭ টাকা। সব মিলিয়ে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের কাছে মোট রয়েছে ১৫ লক্ষ ২৯ হাজার ৩৯.৭১ টাকা।

হিসেব অনুযায়ী ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনের সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রামে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করার ক্ষেত্রে যে হলফনামা জমা দিয়েছিলেন সেই হলফনামার হিসেব অনুযায়ী ওই সময় মুখ্যমন্ত্রীর মোট সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ১৬.৭২ লক্ষ টাকা। এইদিকে ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচনের সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের যেই হলফনামা জমা করেছিলেন তার হিসেব অনুযায়ী মোট সম্পত্তির পরিমাণ ছিল ৩০,৪৫,০১৩ টাকা। অর্থাৎ ঠিকমতন হিসেব করে দেখলে বোঝা যাচ্ছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সম্পত্তির পরিমাণ দিনেদিনে ক্রমেই কমে চলেছে।

অন্যদিকে খোঁজ নিয়ে জানা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর নামে কোনো বাড়তি বাড়ি, গাড়ি বা ঋণের খবর নেই। শুক্রবার ভবানীপুর বিজ্ঞান কেন্দ্র উপ নির্বাচনের জন্য মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা করেছেন আলিপুর সার্ভে বিল্ডিংয়ে। শুভ গণেশ চতুর্থীর দিন তিনি মনোনয়নপত্র জমা করেন।

Back to top button