Story

ঐশ্বর্যর দেওয়া এই শর্তগুলির কারণেই ব্রেকআপ করতে বাধ্য হয়েছিলেন সালমান খান! জেনে নিন কি ছিল শর্তগুলি

বলিউডের অন্যতম এলিজেবল ব্যাচেলর হলেন সালমান খান। একাধিক প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়লেও বিয়ের মন্ডপ অব্দি কোন সম্পর্কই এখনো অব্দি গিয়ে দাঁড়ায়নি। কিন্তু বলিউডের বড় বড় অভিনেত্রী দের সঙ্গে একসময় তার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। তার মধ্যে অন্যতম একজন হলেন ঐশ্বর্য রাই। সেই সময়ে ঐশ্বর্য এবং সালমান খানের প্রেমের জল্পনা তুঙ্গে ওঠে ছিল। সারা ইন্ডাস্ট্রিতে এই জুটিকে নিয়ে চর্চা চলত রীতিমতো। যদিও শেষমেষ এই সম্পর্কের অবসান ঘটে।

কিন্তু সেই সময় তাদের সম্পর্ক এতোটাই ঘনিষ্ঠ হয়ে উঠেছে দর্শকমহলে সকলেই এই দু’জনকে আইডিয়াল বলেই মানতে শুরু করেছিল। জনপ্রিয় হিন্দি ছবি ‘হাম দিল দে চুকে সানাম’ এর সেট থেকেই দুজনের মধ্যে প্রেমের সূত্রপাত হয়। তারপর ধীরে ধীরে তা প্রকাশ্যে আসতে শুরু করে। কিন্তু ঠিক কী কী কারণে সম্পর্ক ইতি টানতে হলো দুজনকে তা অনেকেই জানেন না। আসুন জেনে নেওয়া যাক ঐশ্বর্য এবং সালমানের ব্রেকআপ এর কারণ।

প্রেম করার সময় ঐশ্বর্য রাই সালমান খানকে বেশ কিছু শর্ত দেন। সালমান খানের সেইসময় থাকতেন মুম্বাইয়ের তার পরিবারের সঙ্গে। একেবারে ফ্যামিলি পার্সন ছিলেন সালমান। পরিবারকে ভীষণ ভালোবাসেন তিনি। কিন্তু ঐশ্বর্য রাইয়ের সঙ্গে প্রেম করার সময় অভিনেত্রী থেকে শর্ত দিয়েছিলেন যে তার সঙ্গে সম্পর্ক থাকাকালীন সালমান খানকে নিজের পরিবার ছেড়ে বেরিয়ে আসতে হবে।

তিনি আরও বলেছিলেন ব্যবসার টাকা নাকি বিনিয়োগ করা যাবে না। আর এই সব শর্ত শুনে রেগে যান সালমান খান। এরপর ধীরে ধীরে ফিকে হতে থাকে তাদের সম্পর্ক অবশেষে ২০০২ সালে সম্পূর্ণভাবে সম্পর্কের বিচ্ছেদ ঘটে সালমান-ঐশ্বর্য এর।

Back to top button