Story

জুতো সেলাই করতেন বাবা! রিকশাচালক থেকে বর্তমানে ১০০ কোটি টাকার মালিক এই মানুষটি, তার কঠিন লড়াইয়ের গল্প যে কাওকে কাঁদিয়ে দেবে

কথায় আছে পরিশ্রমের ফল সবসময় মিষ্টি হয়। যে মানুষ যত বেশি পরিশ্রম করবে তার সুখের দিন তত সুন্দর হবে। তবে বর্তমান পরিস্থিতিতে সাধারণ মানুষের দৈনন্দিন জীবনে অনেক বাধা এসেছেন, করোনা পরিস্থিতিতে বহু মানুষ কর্মহীন হয়ে পড়েছে। যার ফলে তাদের রোজগারে ভাটা পড়েছে। এমনই এক গরীব পরিবারের সন্তান হলেন আগ্রার হরিকিশন পিপ্পল।

এক সময় পারিবারিক অবস্থা এতটাই খারাপ ছিল যে দু’বেলা পেট ভরে খেতে পেত না হরিকিশন এর পরিবার। সেই না খেতে পাওয়া হরিকিশন আজ কোটিপতি। বিরাট বড় এক টার্নওভার কোম্পানির মালিক সে। পারিবারিক অবস্থা খুব খারাপ হাওয়াই অনেক ছোট বয়স থেকেই কাজে নেমেছিল হরিকিশন।

তবে কাজের পাশাপাশি সে পড়াশোনা চালিয়ে গিয়েছিল। একটা সময়ে তার বাবা প্রচন্ড ভাবে অসুস্থ হয়ে পড়ে, যার ফলে পুরো পরিবারের দায়িত্ব এসে পড়ে হরিকিশন এর উপরে। কিন্তু সেই সময় দাঁড়িয়ে কোনো কাজই পাচ্ছিলেন না তিনি। তারপর এক আত্মিয়ের সাহায্যে একটি সাইকেল রিক্সা কেনেন, তা নিয়েই পথে নেমে পড়ে হরিকিশন। এরপর কয়েক দিনের মাথাতেই তিনি তার বাবাকে হারান।

বাবাকে হারিয়ে পড়ে একটি ব্যবসা শুরু করে হরিকিশন। ব্যবসার লাভের মুখও দেখেছিল সে। কিন্তু পারিবারিক অশান্তির কারণেই ব্যবসা বন্ধ হয়ে যায়। এরপর হরিকিশন নিজের জুতার ব্যবসা শুরু করে, ধীরে ধীরে জুতোর দোকান খুলে ফেলে সে। মানুষের কাছে তার কাজ এতটাই প্রশংসা পায় যে চারিদিকে হরিকিশন এর নাম ছড়িয়ে পড়ে। এরপর ধীরে ধীরে ব্যবসা বড় হতে থাকে এবং বর্তমানে হরিকিশন ১০০ কোটি টাকার মালিক। নিজের পরিশ্রমের আজ হরিকিশন সফল হয়েছে।

Back to top button