Story

টিউবওয়েল ড্রিলিং কর্মচারী থেকে বলিউডের সুপারস্টার ধর্মেন্দ্র! বলিউডে প্রথম কাজ করে পারিশ্রমিক পেয়েছিলেন ৫১ টাকা, আজ সেই অভিনেতাই বর্তমানে কোটিপতি, জেনে নিন ধর্মেন্দ্রের জীবনের কিছু অজানা কাহিনী

দেখতে দেখতে আশির কোটা পেরিয়ে এ বছরই ৮৬ বছরে পা দিলেন বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেতা ধর্মেন্দ্র। গত মাসেই ধুমধাম করে ৮৬ বছর বয়সের জন্মদিন পালন করলেন জনপ্রিয় এই অভিনেতা। বলিউডের প্রথম অ্যাকশন হিরো তিনি। এখনো নিজের শরীর স্বাস্থ্য সম্পর্কে যথেষ্ট সচেতন তাই এখনো এতটা ফিট এবং সুস্থ রয়েছেন তিনি। তবে শহরের কোলাহল থেকে নিজেকে বেশিরভাগ সময়টাই দূরে রাখেন। তাই নিজস্ব ফার্মহাউস এই বেশিরভাগ সময়টা কাটান ৭০ দশকের এই অভিনেতা। বলাবাহুল্য সম্প্রতি কয়েকদিন আগেই তার একটি চাক্কি পিসিং ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে।

ভিডিওতে অভিনেতার ভক্তরা অভিনেতাকে ভালোবাসায় ভরিয়ে দিয়েছে। এবং ওই ভিডিওতে এক ভক্ত ধর্মেন্দ্রর একটি সাদা কালো ছবি পোস্ট করে ধর্মের কাছে জানতে চেয়েছেন যে এই ছবির যুবকটি তখন কি করত। ছবিটি দেখে বোঝাই যাচ্ছে ছবিটি ধর্মেন্দ্রর নিজের ক্যারিয়ার শুরুর একেবারে প্রথম দিকের।

ধর্মেন্দ্র সেই ব্যক্তিকে উত্তর দিয়ে জানান “শাদাব, আমি সেই সময় হেরল্ড টি স্মিথ নামের এক আমেরিকান টিউবওয়েল ড্রিলিং কোম্পানিতে চাকরি করছিলাম। এই ফটোটা তুলেছিলেন জান মহম্মদ, এটা আমার খুব লাকি ছবি। এটাই আমাকে ছবির জগতে নিয়ে আসে।”

১৯৬০ সালে প্রথম “দিলবি তেরা হাম ভি তেরা” ছবির মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন অভিনেতা। ছবিতে তখন তার পারিশ্রমিক ছিল মাত্র একান্ন টাকা। বলিউডে পা রাখার আগেই বিবাহিত ছিলেন ধর্মেন্দ্র তার প্রথম স্ত্রী প্রকাশ কর এবং তাদের চার সন্তান। পরে ছবি করতে করতে হেমা মালিনীর প্রেমে পড়েন এবং বিয়েও করেন তাকে কিন্তু প্রথম স্ত্রী কে এখন অব্দি ডিভোর্স দেননি অভিনেতা।

নিজের ক্যারিয়ার জীবনে অসংখ্য সিনেমা করেছেন ধর্মেন্দ্র তার মধ্যে থেকে বেশিরভাগ ছবি হিট। একবারে হাউসফুল হল থাকতো তার ছবি চলাকালীন। শোলে, চুপকে চুপকে, দোস্ত, নয়া জামানা, সীতা অর গীতা, ইয়াদ কি বারসাত ইত্যাদি।

Back to top button