Storyবলিউড

বাজে ইঙ্গিতে ফ্লার্ট করার জন্য শুটিং ফ্লোরেই ধর্মেন্দ্রকে সপাটে থাপ্পর মেরে ‘নির্লজ্জ’ বলেছিলেন তনুজা, পুরনো এক সাক্ষাৎকারে নিজেই সেই কথা ফাঁস করলেন অভিনেত্রী

বলিউডের বিখ্যাত অভিনেতা ধর্মেন্দ্র তার অভিনয় এবং তার স্টাইল এর জন্য হিন্দি সিনেমা জগতে অসাধারণ পরিচিতি তৈরি করেছেন। ধর্মেন্দ্র তার অভিনয়ের পাশাপাশি তার চেহারার জন্য সুপরিচিত ছিলেন। তিনি অনেক বলিউড অভিনেত্রীর ক্রাশও ছিলেন। একই সময়ে অনেক অভিনেত্রীর কাছে শোনা গিয়েছিল ফ্লার্টিংয়ে ধর্মেন্দ্র সবার থেকে এগিয়ে। তার ফ্লার্টের কারণে বলিউড অভিনেত্রী তনুজা একবার রেগে গিয়ে তাকে থাপ্পড়ও মারেন। শুধু তাই নয়, তিনি অভিনেতাকে নির্লজ্জও বলেছিলেন তনুজা। এমন পরিস্থিতিতে, ধর্মেন্দ্রকে তার কাছে ক্ষমা চাইতে হয়েছিল।

২০১৪ সালে ফিল্মফেয়ারকে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে তনুজা নিজেই ধর্মেন্দ্র সম্পর্কিত সেই কথা ভাগ করেছিলেন। তনুজা সাক্ষাৎকারে বলেছিলেন যে, সেই সময় ধর্মেন্দ্রর সাথে তনুজা দুলাল গুহের ছবি ‘চাঁদ অর সুরাজ’ ছবির শুটিং করছিলেন। ধর্মেন্দ্রর সঙ্গে সেই সময় তার বেশ ভালো বন্ধুত্ব ছিল। ধর্মেন্দ্রর প্রথম স্ত্রীর সঙ্গেও তনুজা আলাপ ছিল, বেশ ভালো সম্পর্ক ছিল দুজনের। ধর্মেন্দ্রর তখন দুই সন্তান ছেলে সানি এবং মেয়ে লালি। একসাথে অনেক আড্ডা, মজা হতো তাদের, ধর্মেন্দ্রর বাড়িতেও আশা যাওয়া ছিল তানুজার।

একদিন ছবির শুটিং এর ফাঁকে ধর্মেন্দ্র তনুজার সাথে ফ্লার্ট করার চেষ্টা করছিল। সেই পরিস্থিতিতে তনুজা সবটা বুঝতে পেরে রাগে ফেটে পড়েন। আর নিজের সামলাতে না পেরে ধর্মেন্দ্রর গালে সপাটে থাপ্পড় মেরে তাকে ‘নির্লজ্জ’ বলেন। ধর্মেন্দ্র সঙ্গে সঙ্গে পরিস্থিতির অবনতি দেখে ক্ষমা চেয়েছিলেন। তবে ধর্মেন্দ্র কে কিছুতেই তার ব্যবহারের জন্য ক্ষমা করতে পারছিলেন না তনুজা।

তাও হাল ছাড়েননি ধর্মেন্দ্র, বারবার তনুজা কাছে ক্ষমা প্রার্থনা করছিলেন তিনি। নিজেকে তনুজার ভাই বানিয়ে নেওয়ার অনুরোধও করেন ধর্মেন্দ্র। তবে তনুজা তা প্রথমে অস্বীকার করেন। তিনি বলেন তিনি নিজের ভাইয়ের সাথে খুব খুশি। কিন্তু অনেক বোঝানোর পর অবশেষে ধর্মেন্দ্র কে ক্ষমা করেন এবং রাখি পরিয়ে দেন তার হাতে। এরপর একসাথে ‘বাহারে ফিরভি আয়েঙ্গ’, ‘ইজ্জত’, ‘দো চোর’ এর মত অসংখ্য হিট সিনেমা করেছিলেন এই জুটি।

Back to top button