Story

বলিউডে সুনীল শেট্টি কে আর কেও পাত্তা না দিলেও তার স্ত্রীকে বলা হয় ‘লেডি আম্বানি’, এবার সামনে এলো লুকিয়ে থাকা তথ্য

নব্বই দশকের জনপ্রিয় অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম হলেন সুনীল শেট্টি। বলিউডের একাধিক জনপ্রিয় হিট ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। তিনি প্রথম সারির নায়কদের মধ্যে একজন। নিজের অভিনয় জীবনে বড় বড় অভিনেতা-অভিনেত্রীদের সাথে স্ক্রিন শেয়ার করেছেন তিনি। অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি কম পুঁজি জমা করেননি। তবে তার পাশাপাশি তার স্ত্রী মানা শেট্টিও কম পুঁজি জমাননি। তিনি একজন সফল ‘বিজনেস উইমেন’। আর এই কারণবশতই সুনীল শেট্টির স্ত্রীকে বলিউডের লেডি আম্বানি বলা হয়।

‘এসটু রিয়্যালটি অ্যান্ড ডেভালপার্স’ নামে একটি রিয়েল এস্টেট ফার্ম চালান তারা। এই ফার্মের মাধ্যমে সুনীল শেট্টি ও তার স্ত্রী মানা শেট্টি মুম্বাইতে ২১ টি বিলাসবহুল ভিলা তৈরি করে ফেলেছেন ইতিমধ্যেই। এই বিলাসবহুল ভিলার প্রতিটিই ৬৫০০ বর্গফুট জুড়ে বিস্তৃত। এই বিলাসবহুল বিলার ভেতরে সমস্ত সুযোগ সুবিধা রয়েছে। এছাড়াও প্রোডাকশন হাউস, বুটিক, রিয়েল এস্টেট এবং রেস্তোরাঁর মতো ব্যবসা চালান তারা। তবে উল্লেখ্য, স্ত্রীকে ছাড়া একা সুনীল শেট্টি ব্যবসা চালাতে পারবেন না। মানা শেট্টির ব্যবসায়িক বুদ্ধি তুখর। আর এই কারনেই বলিউডের লেডি আম্বানি বলা হয় মানা শেট্টিকে।

মানা শেট্টি একাধিক সমাজসেবামূলক কাজের সঙ্গেও যুক্ত রয়েছেন। ‘সেভ দ্যা চিলড্রেন’ নামে একটি এনজিওর সাথে যুক্ত রয়েছেন তিনি। যারা দরিদ্র অসহায় শিশুদের জন্য কাজ করে। তিনি প্রায়ই বিভিন্ন কারণে মানুষকে সাহায্য করার উদ্দেশ্যে তহবিল সংগ্রহ করেন। অসহায়, অভাবি মহিলাদের জন্য তিনি বিভিন্ন রকম ভাবে কাজ করে থাকেন। তিনি চেষ্টা করেন নিজের মতো করে যতটা সম্ভব তাদের সাহায্য করা যায়।

সম্ভাব্য ১৯৯১ সালে বলিউডের নায়ক সুনীল শেট্টির সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন তিনি। তাদের এই দীর্ঘ দাম্পত্য বেশ সুখের তা বোঝাই যায়। তাদের সোশ্যাল মিডিয়ায় চোখ রাখলে একে অপরের সাথে কাটানো বিভিন্ন মুহূর্তের ছবি চোখে পড়বে। সুনীল শেট্টি ও মানা শেট্টির দুটি সন্তান। মেয়ের নাম আতিয়া শেট্টি (Athiya Shetty), ছেলের নাম আহান শেট্টি (Ahan Shetty)। আতিয়া বর্তমানে অভিনয় জগতের সঙ্গেই যুক্ত রয়েছেন।

Back to top button