Story

মাত্র ২৩ বছর বয়সে ১ কোটি টাকার চাকরি ফিরিয়ে দিয়েছিলেন বিনীতা সিং! শুরু করেন নিজের কসমেটিক ব্র্যান্ড ‘সুগার’, আজ ৫০০ কোটি টাকার টার্নওভার

বর্তমান পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে যদি কারোর কাছে ১ কোটি টাকার চাকরির অফার আসে তাহলে সে কিছু না ভেবেই তা গ্রহণ করবে। কিন্তু যদি কেউ এমন লোভনীয় চাকরি ফিরিয়ে দেয় তাহলে তাকে কিছুটা আরচোখেই দেখবে এই সমাজ। তবে বেশ কয়েক বছর আগে এমনটাই করেছিলেন বিনীতা সিং। তিনি ১ কোটির চাকরি ফিরিয়ে শুরু করেছিলেন নিজের প্রসাধনী সংস্থা। আজকের দিনে দাঁড়িয়ে তিনি কয়েকশো কোটির মালিক।

‘সুগার’ নামক নামি প্রসাধনী সংস্থাটি তিনি শুরু করেছিলেন। বর্তমানে যা প্রতিটি মেয়ের কাছে অন্যতম আকর্ষণের একটি জায়গা। মাত্র ২৩ বছর বয়সেই চাকরি ফিরিয়ে ব্যবসায়ী হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। একটা বড় অনিশ্চিত ভবিষ্যতের দিকে পা বাড়িয়ে ছিলেন তিনি। যেখানে তার কেরিয়ার শুরু হওয়ার আগেই শেষ হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা ছিল। কিন্তু ব্যবসা শুরু করার পর থেকেই তিনি এক বিশাল সাফল্যের মুখ দেখেছিলেন।

গুজরাটের আহমেদাবাদের আইআইএম থেকে পড়াশোনা করেছেন তিনি। ডিগ্রি অর্জন করার পরেই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে তাকে প্লেসমেন্ট দেওয়া হয়। যেখানে তাকে শুরুতেই ১ কোটি টাকার প্যাকেজের অফার দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি তা ফিরিয়ে দিয়েছিলেন। এরপরেই তিনি আহমেদাবাদ থেকে মুম্বাইতে চলে আসেন। একটি ছোট্ট বাড়িতে থাকতেন তিনি। ব্যবসায় সাফল্যের জন্য অনেক ওঠা-পড়ার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে বিনীতা সিংকে। তবে বর্তমানে তিনি ‘সুগার’ নামক প্রসাধনী সংস্থার মাথা।

নিজের স্বপ্ন পূরণ করার জন্য কঠিন পথ বেছে নিয়েছিলেন বিনীতা সিং। তিনি যখন ছোট ছিলেন স্কুলের এক শিক্ষক তাকে উদ্যোক্তা হওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন। শিক্ষকের সেই কথা তার মাথায় ঢুকে গিয়েছিল সেই সময় থেকেই। তখন তার বয়স ছিল মাত্র ১৭। সেই ১৭ বছর বয়সেই তিনি ঠিক করে নিয়েছিলেন তিনি ব্যবসায়ী হবেন। এরপর ধীরে ধীরে পড়াশোনা শেষ করে মাত্র ২৩ বছর বয়সে নিয়েছিলেন সাহসী পদক্ষেপ। বর্তমানে তিনি ব্যবসায়ী জগতের অন্যতম পরিচিত মুখ। উল্লেখ্য, মাত্র ২৩ বছর বয়সে ১ কোটি টাকার চাকরি ফিরিয়ে দেওয়ায় তার নাম উঠেছিল ‘দ্যা উইক’ নামক একটি ম্যাগাজিনের কভার পেজে। সেই থেকেই ধীরে ধীরে ধীরে পরিচিত হতে শুরু করেছিলেন তিনি। বর্তমানে তার প্রসাধনীর ব্র্যান্ড গোটা বিশ্বের মানুষের কাছে পরিচিত।

Back to top button