Story

ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের রিজেকশনই ঐশ্বর্যর জন্য হয়ে দাঁড়িয়েছিল বড় সুযোগ, ঐশ্বর্যর ভাগ্য নির্ধারণ করেছিলেন ঋতুপর্ণা

বলি কুইন ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকে তো আমারা সকলেই চিনি। তবে তার প্রথম কাজ কি, কি করে তিনি সুযোগ পেয়েছিলেন সে বিষয়ে আমরা অনেকেই জানি না। আসুন কিছু অজানা তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

প্রখ্যাত প্রয়াত পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষ আমাদের সকলের কাছে বেশ পরিচিত। একজন পরিচালকের পাশাপাশি তিনি ছিলেন একজন অত্যন্ত ভালো মনের মানুষ। সেই সনামধন্য পরিচালকের অন্যতম একটি চলচ্চিত্র হলো ‘চোখের বালি’। সেই ছবিতেই প্রথম বলিউডে কাজ করেছিলেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। সেই সিনেমার মধ্য দিয়েই জনপ্রিয়তা লাভ করেছিল ঐশ্বর্য।

কিন্তু সর্বপ্রথম এই সুযোগ এসেছিল টলিউড এর অন্যতম সেরা অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তের কাছে। বেশ কয়েক দশক ধরেই টলিউড ইন্ডাস্ট্রি নিজের অভিনয়ে মাতিয়ে রেখেছেন তিনি। তারপরও ঋতুপর্ণ ঘোষের বলিউড ছবিতে কাজের সুযোগ ফিরিয়ে দেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত।

তিনি বরাবরই নতুন অভিনেতা দের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। যার ফলে এরকম বহু সুযোগ তিনি ছেড়েছেন। এরমধ্যেই অন্যতম একটি হলো ‘চোখের বালি’।

চোখের বালি চলচ্চিত্রে ঋতুপর্ণাকে বিনোদিনী চরিত্রের জন্য বাছাই করা হয়। একটি টেলিভিশন শো এর মাধ্যমে তিনি জানান অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় সঙ্গে ব্যাক্তিগত কিছু মনোমালিন্যের জেরেই তিনি বিনোদিনীর চরিত্র করতে রাজি ছিলেন না। তাই জন্যই তিনি সেই সময় অফারটি ফিরিয়ে দেন। আর ও জানান যে, বিনোদিনীর চরিত্র করতে তিনি সেই সময় স্বাছন্দ ছিলেন না।

তবে ১৪ বছর পর আবারও ঋতুপর্ণা – প্রসেনজিৎ এর বিখ্যাত জুটি শিবপ্রসাদ মুখার্জি ও নন্দিনী রায় পরিচালিত ‘প্রাক্তন’ সিনেমার মধ্যে দিয়ে সতেজ হয়ে উঠেছে দর্শকের কাছে।

Back to top button