Story

লকডাউনের চলে গেছে বাবার চাকরি, ডেলিভারি গার্ল হয়ে হাল ধরলো মেয়ে! সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল উড়িষ্যার বিষ্ণুপ্রিয়ার লড়াইয়ের গল্প

করোনা পরিস্থিতিতে লকডাউন এর শিকার হয়ে চাকরি হারিয়েছেন এমন মানুষের সংখ্যা নেহাত কম নয়। ফলাফল হিসেবে আচমকাই সেই সমস্ত পরিবারের উপরে নেমে এসেছিল আর্থিক দুরবস্থার বোঝা। তবে এবার সামনে এলো কিভাবে চাকরি হারানো বাবাকে টাকা দিয়ে সাহায্য করতে ডেলিভারি গার্লের কাজ নিয়ে রাস্তায় নেমেছিলেন ওড়িশার এক সাহসী তরুণী।

জানা গিয়েছে বেশ আর্থিক স্বাচ্ছন্দ ছিল ওই তরুণীর পরিবারে। কিন্তু লকডাউনের সময় চাকরি হারান বিষ্ণুপ্রিয়া নামের ওই তরুণী। অপরদিকে বিষ্ণুপ্রিয়া চেয়েছিলেন পড়াশুনা করে ডাক্তার হতে। কিন্তু সংসারের আর্থিক হাল ফেরানোর জন্য ডাক্তার হওয়ার স্বপ্ন বিসর্জন দিতে হয় তাকে। তার বদলে একাধিক জায়গায় ইন্টারভিউ দিতে শুরু করেন তিনি। শেষ পর্যন্ত এক অনলাইন খাবার ডেলিভারি অ্যাপের হয়ে খাবার ডেলিভারি করার সুযোগ মেলে তার।

তবে সেই কাজের জন্য বাইক চালাতে জানা বাধ্যতামূলক ছিল যা তিনি জানতেন না। তবে অসমসাহসী ১৮ বছরের এই তরুণী অল্পদিনের মধ্যেই বাবার সাহায্যে বাইক চালানো শিখে নেন। বর্তমানে তিনি জোমাটো ডেলিভারি গার্লের হয়ে কাজ করছেন। পাশাপাশি অবসর সময়ে টিউশনি করে সংসারের হাল ফিরিয়েছেন ওড়িশার বিষ্ণুপ্রিয়া। বলাই বাহুল্য তার গল্প সামনে আসতেই মুগ্ধ হয়েছেন নেট দুনিয়ার বাসিন্দারা।

Back to top button