Story

মাত্র ১৬ বছর বয়সে ৫০০ টাকায় বিক্রি করেন স্বামী! মুম্বাইয়ের বড় পতি’তালয় এসে পড়েন গঙ্গুবাঈ, সাধারণ কিশোরী থেকে কী ভাবে মাফিয়া ক্যুইন হলেন গঙ্গুবাঈ? জেনে নিন তার জীবনের অজানা গল্প

ষাটের দশকের সময় পুরো কামাঠিপুরার কর্ত্রী ছিলেন গঙ্গুবাঈ কাথিয়াওয়াড়ি। একদম অল্প বয়স থেকেই তাকে জোর করে যৌনবৃত্তির কাজে লাগানো হয়েছিল। এরপর সেই গুঙ্গুবাই হয়ে উঠেছিল ধীরে ধীরে মুম্বাইয়ের সবথেকে বড় পতিতালয় এর হর্তাকর্তা। এবারে গুঙ্গুবাই এর জীবন কাহিনীর গল্প ফুটিয়ে তোলা হবে বলিউডের বড়পর্দায়। আর মূল চরিত্র অর্থাৎ গুঙ্গুবাই এর চরিত্রে দেখা যাবে বলিউডের জনপ্রিয় ট্যালেন্টেড অভিনেত্রী আলিয়া ভাট কে। বিভিন্ন চরিত্রে পর্দায় নিজেকে ফুটিয়ে তুলতে ভালোবাসেন আলিয়া এবারেও তার অন্যথা হলো না একেবারে ভিন্ন স্বাদের একটি চরিত্রে দেখা যাবে অভিনেত্রীকে ইতিমধ্যে সিনেমার ট্রেলার ভিডিও দর্শকের নজর কেড়েছে নিজের অভিনয়ের প্রশংসা পেয়েছেন আলিয়া। আজ আপনাদের সামনে সেই বোম্বাইয়ের জীবনের কিছু গল্প তুলে ধরব।

এস হুসেন জাইদির লেখা বই ‘মাফিয়া কুইনস অফ মুম্বই’ তে গঙ্গার সম্বন্ধে বেশকিছু তথ্য দেওয়া রয়েছে সেখান থেকেই জানা যায় মাত্র ১৬ বছর বয়সে বাবার হিসাবরক্ষকের সঙ্গে গঙ্গা অর্থাৎ গঙ্গুবাই হরজীবনদাস কাথিওয়াড়ির গুজরাত থেকে মুম্বইয়ে পালিয়ে আসেন। রামনিক লাল নামক ওই ব্যক্তির সঙ্গে প্রেম করে বিয়ে করেন কিন্তু সেই বিয়ের সুখের হয়নি প্রেমে ধোকা খেতে হয়েছিল গঙ্গুবাই কে। টাকার লোভে সেই সময় ৫০০ টাকার বিনিময় গুঙ্গুবাইকে তার স্বামী রামনিক বিক্রি করে দেয়। তারপরই তার ঠাই হয় মুম্বাইয়ের সেই বড় পতিতালয়। সেই পতিতালয় আসা বহু পুরুষ তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে কিন্তু মনের জোর হারায়নি গুঙ্গিবাই।

গঙ্গা যেসময় মুম্বাইয়ে আসে সেই সালটা ছিল ১৯৬০ সেই সময়ে মুম্বাইয়ের সবথেকে নামী এবং ভয়ঙ্কর মাফিয়া ছিল করিম লালা, হাজি মস্তান ও ভরদারাজন। সারা মুম্বাই শহর জুড়ে তখন এই তিনজন মাফিয়ার রাজ। করিম লাল এর দলের একাধিক গুন্ডা গুঙ্গীবাইকে ধর্ষণ করেছিল। তবুও হাল ছাড়েননি তিনি। শেষমেষ কলিমলালার সঙ্গে দেখা করেন গুঙ্গু। তার এই অদম্য মনোভাব জয় করে নিয়েছিল করিমলালার মন। তারপর থেকেই গুঙ্গিবাই কে নিজের বোনের জায়গা দিয়েছিলেন তিনি। প্রতি বছর রাখি তে গঙ্গু হাত থেকে রাখি পড়তেন। ছবিতে করিম লালার চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা যাবে অজয় দেবগন কে। কামাঠিপুরায় একটি গণিকালয় শুরু করেন গঙ্গুবাঈ।

করিম লালার সঙ্গে হাত মিলিয়ে মুম্বাই শহরের সব থেকে বড় পতিতালয় চালাতেন গঙ্গুবাই। কিন্তু যে সমস্ত মেয়েদের জোর করে এই কাজের জন্য ঠেলে দেয়া হতো তাদের প্রতি সহানুভূতিশীল ছিলেন তিনি। নিজের জীবনে অনেক ঝড় ঝাপটা এবং কঠিন লড়াইয়ের সম্মুখীন হতে হয়েছে গঙ্গুবাই কে কিন্তু যৌনকর্মীদের প্রতি তিনি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ ছিলেন যে তিনি ভাল কাজ করবেনই। শোনা যায় কামাঠিপুরা যারাই আসতেন তাঁদের কখনো জোর করে পতিতালয় নামায়নি গঙ্গুবাই। কামাঠিপুরা কে নিজের সন্তানের মতোই যত্নে দেখভাল করতেন তিনি।

নিষিদ্ধ পল্লীর আনাচে-কানাচে আন্ডারওয়ার্ল্ডের লোকেদের ঘোরাফেরা ছিল ঠিক সেইসময় করিম লালার হাত ধরে গঙ্গুবাই হয়ে ওঠেনি পতিতালয়ের রানী। আন্ডারওয়ার্ল্ডের অন্দরমহলে গঙ্গুবাই আনারসে যাতায়াত করতো। বৈভবের পাহাড়ে চড়ার সেই শুরু। আকাশছোঁয়া দামের বিদেশি গাড়ি, সোনা বসানো শাড়িতে গঙ্গুর পথ চলার ধরই তখন অন্যরকম। কামাথিপুরার পতিতালয় রাতারাতি দলে গেল রাজদরবারে। আর সেই দরবারে একছত্র আধিপত্য মুম্বইয়ে এসে সব হারানো সেই মেয়েটা।

ছবির ট্রেলার দর্শকমহলে বিপুল জনপ্রিয়তা ফেলেছে আলিয়া ভাটের অভিনয় দর্শকের মন দারুণভাবে জয় করে নিয়েছেন সঞ্জয় লীলা বানসালির প্রোডাকশন হাউস থেকে জানা গিয়েছে আলিয়া নিজের সবকটি ছবির অভিনয় ছাপিয়ে গিয়েছে এই ছবিতে। নিজের সবটুকু উজাড় করে দিয়েছেন আলিয়া ভাট। তিনি যে একজন দক্ষ অভিনেত্রী তা বারবার প্রমাণ দিয়েছেন এই গঙ্গুবাই চরিত্রের মাধ্যমে এবারে দেখা যাক দর্শক কতটা আপন করে নিতে পারেন।

Back to top button