ভারতের এই রেল স্টেশনের সমস্ত কর্মচারী মেয়ে! স্টেশন মাস্টার থেকে সাফাই কর্মী সবাই মহিলা

Last updated:

বর্তমানে মেয়েরা অদ্বিতীয়। তারা কোনো অংশে ছেলেদের থেকে কম নয়। বর্তমান যুগে তারা ছেলেদের সাথে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সংসারের দায়িত্ব তুলে নিয়েছে নিজের কাঁধে।

তারা চাকরি এবং সংসার দুটোই সমান ভাবে করতে পারে। সেটাই তার প্রমান করে চলেছে প্রতিমুহূর্তে প্রতিদিন। ভারতে এমন একটি রেল স্টেশনে আছে যেখানে গেলে দেখতে পাবেন সেখানকার সমস্ত কর্মচারী মেয়ে। জানেন সেই রেলওয়ে স্টেশনের নাম? চলুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক।

জয়পুরের গান্ধীনগর রেল স্টেশনে গেলে এমন দৃশ্যের দেখা মিলবে। সেখানে স্টেশনমাস্টার থেকে শুরু করে সাফাই কর্মী সকলেই মহিলা এমনকি আরপিএফরাও মহিলা।

এই রেলওয়ে স্টেশানটি ভারতের সর্বপ্রথম মহিলা দ্বারা চালিত রেল স্টেশান। ২০১৮ সালে স্টেশন থেকে সম্পূর্ণরূপে উত্তর-পশ্চিম রেলওয়ে দ্বারা মহিলাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল। এই রেল স্টেশনে প্রায় ৪০ জন মহিলা কর্মচারী নিযুক্ত রয়েছেন।

২০১৮-র পর থেকে এই রেলস্টেশন মহিলারাই পরিচালনা করেন। জয়পুরের গান্ধীনগর এই রেলওয়ে স্টেশন দিয়ে প্রায় ৫০ টি ট্রেন যায় এবং তাতে করে প্রায় ৭০০০ যাত্রী যাতায়াত করে।

এই স্টেশনে মহিলা কর্মচারীরা দিনরাত আধঘন্টা শিফটে ভাগ হয়ে কাজ করেন। সমস্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য যাতে একসাথে সবাইকে দিয়ে দেয়া যায় তার জন্য তাদের হোয়াটসঅ্যাপে ‘সখি’ নামে একটি হোয়াৎসঅ্যাপ গ্রুপ আছে। এই স্টেশনে যেহেতু সকলেই মহিলা কর্মচারী তাই এখানে একটি প্যাড ভেন্ডিং মেশিনও আছে।

জয়পুরের এই গান্ধীনগর রেলওয়ে স্টেশন যথেষ্ট ব্যস্ত একটি স্টেশন। ভারতের এই স্টেশনে মহিলার ক্ষমতায়নের অন্যতম উদাহরণ। মেয়েরা সব পারে। তারাও কোনো অংশে কারুর থেকে পিছিয়ে নয়। এটি তারই উদাহরণ।