বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা বহিরাগত হলে আপনার সাধের পিকে কি কালীঘাটে জন্মেছিল? মমতাকে কটাক্ষ তরুণজ্যোতি তিওয়ারির

আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নিত্যই বাড়ছে বিজেপি—তৃণমূল তরজা৷ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের সভা থেকে একে অপরকে বাক্ —আক্রমণ চলছে ক্রমাগত৷ একদিকে প্রায় দোরগোড়ায় ২০২১, যেখানে নিজেদের ঘাঁটি আরও দৃঢ় করতে মরিয়া তৃণমূল, সেখানে রোজই প্রকাশ্যে আসছে তৃণমূলের আভ্যন্তরীণ কোন্দল৷ একের পর এক হেভিওয়েট নেতারা ইস্তফা দিচ্ছেন দল থেকে৷ এই পরিস্থিতিতে নিজেদের জায়গা শক্ত করছে বিরোধীপক্ষ৷

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সম্প্রতি এক সভাতে দাঁড়িয়ে বলেছেন যে তার সরকার বিগত দশবছরে মানুষের জন্য প্রভূত কাজ করেছে৷ তার দাবী, ২ কোটি সংখ্যালঘু ছাত্রছাত্রীদের দেওয়া হয়েছে স্কলারশিপ৷ এমনকি ১৭ শতাংশ OBC সংরক্ষণের জন্য আজকে বাংলার ছেলেমেয়েরা ডাক্তার আর ইঞ্জিনিয়ার হচ্ছে৷

এবার তাকে একহাত নিলেন বিজেপি রাজ্য যুব মোর্চার সহ-সভাপতি তরুণজ্যোতি তিওয়ারি৷ গতকাল একটি ফেসবুক ভিডিও পোস্ট করেন তিনি এবং সেখানে মাননীয়ার বক্তব্যের প্রেক্ষিতে কতকগুলি প্রশ্ন রাখেন৷ প্রথমেই তিনি প্রশ্ন তোলেন, ২কোটি ছেলেমেয়ের স্কলারশিপ হলেও হিন্দুদের জন্য তৃণমূল সরকার কি করেছে! বরং OBC সিট মুসলিমদের জন্য সংরক্ষণ করে রেখে আসলে যারা OBC তাদের অধিকার কেড়ে নিয়েছেন৷ তরুণজ্যোতি তিওয়ারি মূখ্যমন্ত্রীর বক্তব্যের প্রতিটি অংশ ধরে ধরে এই ভিডিওতে প্রশ্ন তোলেন৷ তৃণমূল সরকার সম্প্রতি ঘোষণা পুরোহিতদের ভাতা ঘোষণা করেন, তরুণজ্যোতিবাবু বলেন “তবে ২০১২ থেকে গুণে গুণে পুরোহিতদের ভাতা দিন মাননীয়া৷” তিনি সরাসরি কটাক্ষ করেন মুখ্যমন্ত্রীকে৷ তার মতে, ৩০শতাংশের রাজনীতি করে তৃণমূল৷

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সেদিন জনসভা থেকে বিজেপিকে নিশানা করতেও ছাড়েননি৷ তিনি বলেন, বিজেপির সকলে বহিরাগত৷ এমনকি “জঙ্গলের ডাকাত আর গুণ্ডা” বলেও আক্রমণ হানেন বিজেপিকে৷ এই বক্তব্যতে তরুণজ্যোতি তিওয়ারির প্রশ্ন,”তাহলে আপনার সাধের পিকে কোথাকার? সে বহিরাগত নয়? কালীঘাটে জন্মেছিল?”

পাশাপাশি বিজেপি নেতা মমতাকে নিশানা করে এও বলেন যে, ভোটের আগে তৃণমূল নিজের ভুল বুঝতে পেরে হিন্দুদের কথা ভাবছে৷ এতদিন মমতার সরকার তোষণের রাজনীতি করে গেছে বলেও অভিযোগ তার৷ এদিন মমতা বলেন,”মানুষ হয়ে জন্মেছি মানুষ হয়ে মরবো!” এই প্রসঙ্গে বিজেপি নেতার প্রশ্ন ,”তবে মাঝের সময়টাতে কি ছিলেন আপনি?”