OffBeat

গ্যাস সিলিন্ডারের গায়ে লেখা কোড গুলোকে অবহেলা করবেননা! করলে ঘটতে পারে বিপত্তি, জেনে নিন বিস্তারিত

এখন প্রত্যেকের ঘরেই রান্নার জন্য গ্যাস সিলিন্ডার এর ব্যবস্থা রয়েছে। প্রতি মাসে ফোনের বুকিং এর মাধ্যমে আমরা বাড়িতেই গ্যাস ডেলিভারি পেয়ে যাই। আমরা একটু লক্ষ করলেই দেখতে পাবো আমাদের ঘরের গ্যাস সিলিন্ডার গুলির গায়ে বিভিন্ন ধরনের ইংরেজি অক্ষর ও সংখ্যা লেখা থাকে।

আমরা অনেকেই এই সংখ্যার অর্থ জানি না। কিন্তু গ্যাস সিলিন্ডার এর গায়ে লেখা এই সংখ্যা গুলো খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আসুন জেনে নেওয়া যাক এর গুরুত্ব।

সংখ্যা ও অক্ষর গুলি হলো আসলে এক একটি কোড। এই কোড গুলি সাধারণত নিরাপত্তার জন্য ব্যবহার করা হয়ে থাকে।
কোড গুলির কোনোটিতে এ 13 বি 14 সি15 ইত্যাদি লেখা থাকে। কোনগুলি ক্ষেত্রে চারটি ইংরেজি শব্দ এবং ইংরেজি সংখ্যা উল্লেখ করা থাকে বিশেষ করে গ্রাহকদের নিরাপত্তার কথা ভেবে এই কোডগুলো ব্যবহৃত করা।

ইংরেজী চারটি কোডের মাধ্যমে মাস বোঝানো হয়। পরে নম্বরগুলি সাহায্যে বছর বোঝানো হয়ে থাকে। এগুলির মাধ্যমে সিলিন্ডার নিরাপত্তা এবং কোন বছর সিলিন্ডার পরীক্ষা করা উচিত তা বোঝানো হয়ে থাকে। এ লেটার এর মাধ্যমে জানুয়ারি ফেব্রুয়ারি মার্চ 3 মাস বোঝানো হয়ে থাকে বি লেটার মাধ্যমে এপ্রিল মে জুন এবং সি লেটার এর মাধ্যমে জুলাই আগস্ট সেপ্টেম্বর এবং ডি লেটার এর মাধ্যমে অক্টোবর নভেম্বর-ডিসেম্বর বোঝানো হয়।

এখন কোন গ্যাস সিলিন্ডারের গায়ে যদি ২৩ লেখা থাকে তাহলে বুঝতে হবে গ্যাস সিলিন্ডার টি ২৩ সালে পরীক্ষা করতে হবে। সিলিন্ডারটি মার্চ শের মধ্যে পরীক্ষা করা দরকার না হলে অনেক বড় ধরনের বিপত্তি ঘটতে পারে। বিআইএস ৩১৯৬ মাপকাঠির দ্বারাই ভারতের সমস্ত গ্যাস সিলিন্ডার তৈরি করা হয়।

এর মাপকাঠি অনুযায়ী একটি গ্যাস সিলিন্ডারের মেয়াদ ১৫ বছর পর্যন্ত থাকে। এরমধ্যে বছরে দুবার অন্তত গ্যাস সিলিন্ডার পরীক্ষা করা উচিত না হলে ভোট দিতে পারে অনেক বড় বিপদ।

Back to top button