মারাত্মক খারাপ খবর! ভারতে ছড়ানো স্ট্রেনে ভ্যাকসিন ঠিক কাজ করতে পারবে তো সংশয়ে WHO

করোনার (COVID) নতুন স্ট্রেনগুলি অত্যন্ত মারাত্মক এবং অধিক সংক্রামক। শুধু তাই নয়, ভারতে ছড়ানো স্ট্রেনে ভ্যাকসিনের কার্যকরিতা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

ভারতে অক্টোবর থেকে ছড়াচ্ছে ভ্যাকসিনের বি.১.৬১৭ স্ট্রেন। কয়েকদিন আগেই স্ট্রেনটিকে ‘ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন’ বলে ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ইতিমধ্যেই ৪৪ দেশে ছড়িয়ে পড়া এই স্ট্রেন অ্যান্টিবডিকেও ফাঁকি দিতে পারে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেছে হু।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, ব্রিটেনের বি.১.১৭ এবং ভারতের বি.১.৬১৭ স্ট্রেনের মাধ্যমে সংক্রমণ গত কয়েক সপ্তাহে কমেছে। কিন্তু অন্য দু’টি মিউটেশন বি.১.৬১৭.১ এবং বি.১.৬১৭.২ অতি সংক্রামক হয়ে উঠেছে।

এই স্ট্রেনগুলি একাধিক দেশে হানা দিয়েছে। এই বি.১.৬১৭ স্ট্রেনে ভ্যাকসিনের কার্যকরিতা, ওষুধে নিরাময় ও আবার সংক্রমণের বিষয়েও অনিশ্চিত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

ভারতের একাধিক ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধে ফাইজ়ার ও মডার্না টিকার কার্যকরিতা কমেছে বলেও দাবি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার। অন্যদিকে মার্কিন গবেষকরা অবশ্য দাবি করছেন তথ্য অনুযায়ী, ভারতের বি.১.৬১৭ স্ট্রেনের বিরুদ্ধে কাজ করছে ফাইজ়ার ও মডার্না।

ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব সায়েন্সের ডিরেক্টর ফ্রান্সিস কলিনসের দাবি বি.১.৬১৭ স্ট্রেনের বিরুদ্ধে কার্যকরিতা প্রমাণ হয়েছে ফাইজ়ার, মডার্না ও জনসনের। কিন্তু বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এহেন ‘অনিশ্চিত’ মন্তব্যে নিঃসন্দেহে চিন্তা বাড়ল চিকিৎসক মহলে।

উল্লেখ্য, এপ্রিল মাসে ভারতে একাধিক নমুনার জিনোম সিকোয়েন্স করে দেখা গিয়েছিল বি.১.৬১৭.১ রয়েছে ২১ শতাংশ নমুনায়। অন্যদিকে বি.১.৬১৭.২ রয়েছে ৭ শতাংশ নমুনায়।