আসছে বছরে বেশ কয়েক দিন বন্ধ থাকবে মদের দোকান, জেনে নিন দিন গুলো

করোনা পরিস্থিতিতে প্রায় বহুদিন আরও বেড়েছে লকডাউন, আর এর জেরে আরও বেশি কষ্টে ভুগেছেন সুরাপ্রেমীরা। আর সেই কষ্টের পর আরও নুনের ছিটে দিতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সম্প্রতি জানানো হয়েছে আগামী বছরে কোন কোন দিন মদের দোকান বন্ধ থাকবে।

সুরাপ্রেমীদের কাছে মদ খাওয়ার জন্য সময়, তারিখ দিন লাগে না। বলতে গেলে তারা এসব বাদ দিয়ে মদ পান করে থাকেন। চলতি বছরে লকডাউনের কারনে প্রায় দু মাস দোকান বন্ধ থাকার কারনে সুরাপ্রেমীদের অনেকেই হতাশ হয়ে পড়েন। অনেকে আবার সুরা না পেয়ে মনের দুঃখে নিজের জীবন শেষ করে দিতে ও পিছিপা হন নি। কিন্তু সব পেড়িয়ে মদের দোকান খুলতে না খুলতেই শুরু ব্যপক ভিড়। অনেকেই ভোরবেলা থেকে মদ কেনার জন্য দোকানের বাইরে লাইন লাগাতে শুরু করেন। এরপর বেধে দেওয়া হয় দোকানের সময়। কিন্তু তাতেও কমেনি মদের বিক্রি। বরং বাড়ি থাকার সুবাদে মদ বিক্রি আরো বেশি বেড়ে গিয়েছে।

তাহলে জেনে নেওয়া যাক সেই দিনগুলির তালিকা :

জানুয়ারি মাসের ১৪ জানুয়ারি, বৃহস্পতিবার– মকর সংক্রান্তি, ২৬ জানুয়ারি, মঙ্গলবার– প্রজাতন্ত্র দিবস, ৩০ জানুয়ারি, শনিবার– শহিদ দিবস।

ফেব্রুয়ারি মাসের, ১৯ ফেব্রুয়ারি, শুক্রবার– ছত্রপতি শিবাজী মহাবীর জয়ন্তী, ২৭ ফেব্রুয়ারি, শনিবার– গুরু নানক জয়ন্তী।

মার্চ মাসের, ৮ মার্চ, সোমবার– স্বামী দয়ানন্দ সরস্বতী জয়ন্তী, ১১ মার্চ, বৃহস্পতিবার– মহাশিবরাত্রি, ২৯ মার্চ, সোমবার– হোলি।

এপ্রিল মাসের, ২ এপ্রিল, শুক্রবার– গুড ফ্রাইডে‌, ১৪ এপ্রিল, বুধবার– আম্বেদকর জয়ন্তী, ২১ এপ্রিল, বুধবার– রামনবমী, ২৫ এপ্রিল, রবিবার– মহাবীর জয়নন্তী।

মে মাসের, ১২ মে এবং ১৩ মে, বুধবার ও বৃহস্পতিবার– ইদ উল–ফিতর।

জুলাই মাসের, ২৪ জুলাই, শনিবার– গুরু পূর্ণিমা।

আগস্ট মাসের, ১০ আগষ্ট, মঙ্গলবার–মহরম, ১৫ আগস্ট, রবিবার– স্বাধীনতা দিবস, ৩০ আগষ্ট, সোমবার– জন্মাষ্টমী।

সেপ্টেম্বর মাসের, ১০ সেপ্টেম্বর, শুক্রবার– গণেশ চতুর্থী

অক্টোবর মাসের, ২ অক্টোবর, শনিবার– গান্ধী জয়ন্তী, ১৫ অক্টোবর, শুক্রবার– দশেরা, ১৮ অক্টোবর, সোমবার– ইদ–এ–মিলাদ, ২০ অক্টোবর, বুধবার– মহর্ষি বাল্মীকি জয়ন্তী।

নভেম্বর মাসের, ৪ নভেম্বর, বৃহস্পতিবার:‌ দিওয়ালি, ১৪ নভেম্বর, রবিবার:‌ কার্তিকী একাদশী, ১৯ নভেম্বর, শুক্রবার:‌ গুরু নানক জয়ন্তী।

ডিসেম্বর মাসের, ২৫ ডিসেম্বর, শনিবার– ক্রিসমাস। আপাতত এই কয়েকদিন বন্ধ থাকতে চলেছে মদের দোকান।