নিখুঁত নিশানায় সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইল উৎক্ষেপণ করল ভারত, মাথায় চিন্তার ভাজ চীন-পাকিস্তানের

MODI CHINA PM PAKISTAN PM

শত্রুর সাথে মোকাবিলায় ভারতের হাতে এখন রয়েছে একাধিক নিশানার ব্রহ্মস মিসাইল। সম্প্রতি ব্রহ্মস মিসাইলের সফল পরীক্ষণের পর মঙ্গলবার সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইলের অ্যান্টি শিপ সংস্করণের বেশ সফল পরীক্ষণ করে ভারত।একেবারে সঠিক নিশানায় উৎক্ষেপণ করা হয় মিসাইল, তা দেখে অবাক দুই প্রতিবেশী দেশ চিন – পাকিস্তান ! ভারতীয় নৌসেনা দ্বারা করা এই পরীক্ষণ আন্দামান আর নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ থেকে করা হয়েছে।

সূত্রের খবর, DRDO দ্বারা বিকশিত ব্রহ্মস সুপারসনিক ক্রুজ মিসাওল ৩০০ কিমি স্ট্রাইক রেঞ্জের সাথে ভারতীয় নৌসেনার আইএনএস রণবিজয় থেকে উৎক্ষেপণ করা হয় এবং এই সুপারসনিক ক্রুজ মিসাইলে অ্যান্টিস হিপ ভার্সন বঙ্গোপাসগরে থাকা নিজের লক্ষ্যে একেবারে সফলতাপূর্বক আঘাত হেনে বসে।

উল্লেখ্য,এই নয়া পরীক্ষণ DRDO দ্বারা বিগত দুমাসে ধরে করা পরীক্ষণের অংশ। ২৪ নভেম্বর ব্রহ্মসের একটি সংস্করণকে আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ থেকে সফল ভাবে পরীক্ষণ করা হয়েছিল। ভারতীয় সেনা দ্বারা পরীক্ষণে আরেকটি দ্বীপে থাকা নিজের লক্ষ্যে আঘাত হানে এই মিসাইল।

প্রসঙ্গত, DRDO এর এই সফল পরীক্ষণ এর গুরুত্ব এই মুহূর্তে অনেক বেশি । কারণ বাস্তবিক নিয়ন্ত্রণ রেখায় চীনের সাথে চলা বিরোধের উত্তেজনা এখনও কমেনি। করোনা ভাইরাসের উৎসস্থল চীনের সাথে প্রায়ই দ্বন্দ লেগে চলছে ভারতের। সম্প্রতি আরও বেশ কিছু চিনা অ্যাপ ব্যান করা হয়েছে। তাছাড়া পাকিস্তানের সাথে প্রায় প্রতিদিনই সীমান্তে উত্তেজনা বেড়েই চলেছে। গতকাল সাম্বা সেক্টরে সীমান্তে পাশে পাকিস্তানের একটি লড়াকু বিমান দেখা যায়। এরপর ভারতীয় সীমান্ত রক্ষীরা আরও সতর্ক হয়ে যায়।ফলে, দুই প্রতিবেশী সাথে দেশের চলা এই উত্তেজনার মাঝে ব্রহ্মস মিসাইলের একের পর এক সফল পরীক্ষণ চীন এবং পাকিস্তানের চিন্তা আরও বাড়িয়ে তুলবে সেটাই খুব স্বাভাবিক। তবে এর পরিবর্তে চিন – পাকিস্থান থেকে পাল্টা জবাব টা ঠিক কেমন আসতে পারে সেটা ও চিন্তার বিষয়।