টলিউড

‘নুসরাত যা করেছে, বেশ করেছে, কুর্নিশ ‘মা’ নুসরতকে’, অভিনেত্রী শ্রুতির পর এবারে নুসরাতের পাশে দাঁড়ালেন অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র!

লাগাতার দশ মাস ধরে কটাক্ষ করা হলেও অবশেষে সন্তান প্রসবের পর নুসরাত জাহান পাশে পেয়েছেন অনেকেই। অভিনেত্রী নুসরাত জাহান এর পাশে দাঁড়িয়েছেন বেশিরভাগ নাগরিক থেকে শুরু করে অভিনেতা-অভিনেত্রীরাও। সমাজের সব বাধা উপেক্ষা করে নুসরতের সিঙ্গেল মাদার হওয়ার মতো সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই সাহসিকতাকে সবাই কুর্নিশ জানিয়েছেন। ভারতের মত যে দেশে সমাজে মেয়েরা মা হলেই তার পিতৃ পরিচয় জানতে চাওয়া হয় সেখানে দাঁড়িয়ে সিঙ্গেল মাদার হওয়া যথেষ্ট সাহস না থাকলে হয়না।

গতকালই দেখা গিয়েছিল অভিনেত্রী নুসরাত জাহানকে সমর্থন জানিয়ে অভিনেত্রী শ্রুতি দাস সামাজিক মাধ্যমে নিজের মনের কিছু কথা পোস্ট করেছিলেন। যেখানে তিনি সমর্থন জানিয়ে লিখেছিলেন যতবারই সদ্যোজাতকে যতবার পিতৃ পরিচয় জিজ্ঞাসা করা হবে ঠিক ততোবারই জিতে যাবে নুসরাতের মাতৃত্ব। তিনি আরও বলেছিলেন যদি সবাই গর্ভযন্ত্রনা বুঝত তাহলে মাতৃত্বকে নিয়ে কেউ এভাবে কটাক্ষ করতে পারত না।

এবারে অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র তার পাশে এসে দাঁড়ালেন। এক সংবাদমাধ্যমকে অভিনেত্রী জানিয়েছেন,‘‘পিতৃপরিচয় ছাড়া মাতৃত্বের উদ্‌যাপন করলেন নুসরত। এর জন্য প্রচণ্ড সাহস আর কলিজার জোর থাকা চাই। আমি অভিনন্দন জানাই নুসরতের মাতৃত্বকে। কুর্নিশ করি ‘মা’ নুসরত জাহানকে।’’

অনেকেই অভিনেত্রী নুসরাত জাহানকে স্বেচ্ছাচারিতার তকমা দিয়েছেন। সেই প্রসঙ্গে অভিনেত্রী শ্রীলেখা মিত্র ঠিক কি মনে করেছেন তা জানতে চাইলে শ্রীলেখা মিত্র জানিয়েছেন, ‘‘নুসরতের সন্তানের পিতৃপরিচয় এখনও অজানা। অনুমান, তিনি তাঁর ‘বিশেষ বন্ধু’ যশ দাশগুপ্তের সন্তানের মা। প্রেমিককে ভালবেসে তাঁর সন্তানকে গর্ভে ধারণ করা, তাকে পৃথিবীর আলো দেখানো অবশ্যই স্ব-ইচ্ছায় করেছেন ‘এসওএস কলকাতা’-র ‘আমান্ডা’। একে যদি কেউ স্বেচ্ছাচারিতা বলেন তো বলবেন। আমি বলব, নুসরত যা করেছেন বেশ করেছেন।’’

Back to top button