টলিউড

‘কালো জলে কুচলা তলে’ ২৭তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের উদ্বোধনে মঞ্চ মাতালেন শুভশ্রী, কৌশানি, সায়ন্তিকারা

প্রতি বছরের মতনই এই বছরেও অনুষ্ঠিত হয়েছে কলকাতার আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। তবে প্রতিবারের চেয়ে এই বছরের ছবিটা একটু আলাদা। প্রতিবছর বছরের শুরুতে জানুয়ারি মাসে অনুষ্ঠিত হয় এই আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। কিন্তু বছরের শুরুতে করোনার প্রকোপ বাড়াবাড়ি হওয়ায় তা পিছিয়ে যায়। সোমবার থেকে শুরু হয়েছে এবছরের আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। প্রথা ভেঙে নেতাজি ইন্দোরের জায়গায় নজরুল মঞ্চে সাদামাটা আয়োজনে উদ্বোধন সারা হলো। এই শুভারম্বে উপস্থিত ছিলেন আসানসোলের নবনির্বাচিত সাংসদ তথা অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা। আর ছিলেন মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী সহ টলিউডের একঝাঁক তারকা।

এবারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ছিল কিছু বদল। চলচ্চিত্র উৎসবের চেয়ারপার্সন রাজ চক্রবর্তীর ভাবনায় এবার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মঞ্চে ফুটে উঠল বাংলার সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য। লাল মাটির নাচের সেই দৃশ্য ভেসে উঠলো সায়ন্তিকার নাচে। আর ছৌ নৃত্য, বাংলার বাউলের তালে নেচে উঠলো দিতিপ্রিয়া, দেবলীনা ও মানালিরা। ব্যাকগ্রাউন্ড এ ভেসে এলো অদিতি মুন্সীর সুরেলা কণ্ঠ ও কৌশানির কৃষ্ণনাম জপ। আর শুভশ্রী কে নৃত্যনাট্য এর মাধ্যমে বলতে শোনা গেল ‘এই পৃথিবীর একই মাটি, একই আকাশ,বাতাস’

এইদিন অনুষ্ঠানের সঞ্চালনার দায়িত্বে ছিলেন অভিনেতা পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় ও অভিনেত্রী তথা সাংসদ জুন মালিয়া। এবছর চলচ্চিত্র উৎসবে জন্মশতবর্ষে বিশেষ সম্মান জানানো হচ্ছে বিশ্ব চলচ্চিত্রের তিন প্রবাদ প্রতিম ব্যক্তিত্বকে। সত্যজিৎ রায়, চিদানন্দা দাশগুপ্ত এবং হাঙ্গেরিয়ান পরিচালক মিকলোস জাঁকোসকে। আগামী ২রা মে পর্যন্ত চলবে চলচ্চিত্র উৎসব। এইবার মোট ১০টি প্রেক্ষাগৃহে বিভিন্ন ভাষার মোট ১৬০টি ছবি দেখানো হবে। শোয়ের সংখ্যা ২০০টা ।

Back to top button