করোনা আবহে জুন মালিয়ার নতুন উদ্যোগ, কোভিড আক্রান্তদের বিনামূল্যে খাবার ও চিকিৎসা পরিষেবা

আগের বছরের তুলনায় পশ্চিমবঙ্গে করোনা পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হয়ে উঠেছে। দিন দিন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। সাধারণ মানুষএর টিকে থাকা কিছুটা হলেও দুর্বিসহ হয়ে পড়েছে।

এক দিকে শাসক কুলের অবহেলা অন্যদিকে এই মর্মান্তিক পরিস্থিতির সাথে মোকাবেলা করা সাধারণ মানুষের হাতের বাইরে এসে দাঁড়িয়েছে। এই ভয়াবহ পরিস্থিতির কিছুটা মোকাবেলার জন্য কিছু তারকা প্রার্থী নিয়েএসেছে নতুন উদ্যোগ।

সাধারণ মানুষের কল্যানে বিনামূল্যে খাবার ও চিকিৎসা পরিষেবার ব্যবস্থা করেছেন কিছু তারকা বিধায়ক। কোথাও কোথাও তৈরী হয়েছে কমিউনিটি কিচেন, আবার কোথাও বিধায়ক অফিস বদলে গেছে আইসোলেশন ওয়ার্ডএ।

মেদিনীপুরের সদ্য নির্বাচিত তারকা বিধায়ক জুন মালিয়া অসহায় মানুষের কাছে সাহায্যের হাত পৌঁছে দিলেন। চালু করলেন তার নতুন উদ্যোগ ‘আহা রে আহারে’।

মেদিনীপুর বিধানসভার অন্তর্গর্ত ২৫টি ওয়ার্ডে করোনা আক্রান্ত রুগীদের বিনামূল্যে খাবার পৌঁছে দিলেন। ওই সমস্ত ওয়ার্ডের অন্তর্গর্ত যে সব মানুষ করোনা আক্রান্ত এবং নিজের খাবার বানাতে অক্ষম ব্যাক্তিদের তিনবেলা পুষ্টিকর কাবার পৌঁছে দেওয়া হবে বিনামূল্যে।

এই পরিষেবা পাওয়ার জন্য অবস্যই রুগীকে দেখাতে হবে তার করোনা পসিটিভ রিপোর্ট। শুধু মাত্র করোনা রুগীদের জন্য এই পরিষেবা, পরবর্তীকালে সাধারণ মানুষের জন্য আরো কিছু পরিষেবা নিয়ে আসার পরিকল্পনা রয়েছে তার।

তারকা প্রার্থী হিসেবে একা জুনই নন, তৃণমূল সংসদ তথা অভিনেতা দেব ঘটালে শুরু করেছেন কমিউনিটি কিচেন। ব্যারাকপুরে রাজ্ চক্রবর্তী করোনা আক্রান্তদের বিনামূল্যে খাবার পরিষেবা চালু করেছেন।

চন্ডিপুরের বিধায়ক তথা অভিনেতা সোহম চক্রবর্তীও শুরু করেছেন বিনামূল্যে চিকিৎসা পরিষেবা। এই কঠিন পরিস্থিতিতে তারকা প্রার্থীদের অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ানোকে অনেকেই সমর্থন করেছেন।