ভোটে হারলেও আসানসোলের মন জিতে নিয়েছেন Saayoni

আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ প্রথমবার লড়লেন বিধানসভা ভোটে। প্রথমবার ময়দানে নেমেই সকলের মন জিতে নিয়েছেন নায়িকা। মাত্র ১৮০০ ভোটে বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পালকে হারিয়েছেন তিনি। দলের কর্মীরাও তাঁর ব্যবহারে মুগ্ধ। এক মাসের মধ্যেই আসানসোলের মা-বোনদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছেন সায়নী।

প্রচারের ছবি ও ভিডিওতেও বারবার দেখা গিয়েছে তাঁকে সাদরে গ্রহণ করেছেন মানুষ। বিতর্কেও জড়িয়েছেন কয়েকবার। খেলা হবে গানে নাচই হোক, বা হঠাৎ শাড়ির কুচি ধরে দৌড়ানো, সমালোচনাও কম হয় নি অভিনেতাকে নিয়ে। রাজনীতিতে আসার কথা ছিল না তাঁর, শুধু মনে হয়েছে এই সময় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত শক্ত করতে হবে। তাই রাজি হয়েছিলেন অভিনেতা। বিশ্বাস ছিল তিনি তৃণমূলকে জিতিয়ে আনবেন, দলও তাই ভেবেছিলেন। সামান্য ভোটে বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পালের কাছে হারতে হয় তাঁকে।

মন খারাপের মাঝেই টুইটারে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছেন সায়নী ঘোষ। প্রচারের প্রথম দিন থেকে শুরু করে শেষ দিন, সকলের দুয়ারে পৌছে গিয়েছিলেন কীভাবে, তাঁকে আপন করে নিয়েছিলেন কীভাবে মানুষ সেই সব মুহুর্ত দিয়ে গাঁথা একটি কোলাজ ভিডিও। কমেন্টেও শুভেচ্ছার বন্যা। তৃণমূলের ভাই-বোনেরা কেউ লিখেছেন বাংলা তাঁর মেয়েকেই চায়, কেউ আবার বলেছেন সায়নী ঘোষ (Saayoni Ghosh) আগামী দিলেন বড় নেতার নাম। এই ভিডিও পোস্ট করে তিনি লেখেন ‘One for the road’, অর্থাৎ আগামীর পথ চলার জন্য এই ভিডিওই তাঁর কাছে সম্পদ হয়ে থাকবে।