‘প্রাক্তন’ এ অপরাজিতা আঢ্য নন, বরং ‘মালিনী’ হওয়ার কথা ছিল অর্পিতা চ্যাটার্জীর! গোপন তথ্য ফাঁস করলেন শিবপ্রসাদ-নন্দিতা স্বয়ং

২০১৬ সালে পরিচালক শিবপ্রসাদ আর নন্দিতার সিনেমা ‘প্রাক্তন’ মন জয় করে নিয়েছিল দর্শকদের। বক্স অফিসে চূড়ান্ত হিট হয়েছিল সিনেমাটি। পাঁচ বছর পরে সেই সিনেমা নিয়ে নানা অজানা তথ্য নেটিজেনদের সঙ্গে শেয়ার করে নিয়েছেন পরিচালক জুটি।

তাদের কথা থেকেই জানা গেছে মালিনী অর্থাৎ সিনেমায় প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের দ্বিতীয় বউয়ের চরিত্রটি করার কথা ছিল অর্পিতা চ্যাটার্জি অর্থাৎ প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের রিয়েল লাইফ স্ত্রীয়ের।

কিন্তু স্ক্রিপ্ট যত এগোতে থাকে ততই এই পরিচালক জুটির মনে হয়েছিল অর্পিতা নন বরং আরেক টলিউড অভিনেত্রী অপরাজিতা আঢ্য পারবেন চরিত্রটিকে ঠিকঠাক ফুটিয়ে তুলতে।

সেকথা অর্পিতাকে জানিও দেন তারা। এদিন অর্পিতাকে ধন্যবাদ জানিয়ে এই পরিচালক জুটি জানিয়েছেন তাদের সঙ্গে একেবারে সহমত হয়েছিলেন অর্পিতা, স্বেচ্ছায় ছেড়েও দেন তিনি রোলটি। এর পরেই কাস্ট করা হয় অপরাজিতাকে।

এদিন সিনেমার গল্প নিয়ে আরও এক গোপন তথ্য ফাঁস করেছেন পরিচালকেরা। প্রাক্তন এর গল্প কোন মনগড়া কাহিনী নয় বরং সত্যিকারের কলকাতার এক টুরিস্ট গাইড ঋত্বিক চক্রবর্তী এবং তার স্ত্রী মধুরার কাহিনী।

জানা গেছে ছবির চরিত্রটিকে বিশ্বাসযোগ্য করে তুলতে অভিনেতা প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় ঋত্বিক চক্রবর্তীর সঙ্গে কলকাতা ভ্রমণেও বেরিয়েছিলেন।একসাথে সময় কাটিয়ে তিনি ঋত্বিকের বডিল্যাঙ্গুয়েজ থেকে শুরু করে পোশাক-আশাক সমস্তটাই সফলভাবে অনুকরণ করেন।

অপরাজিতা চরিত্রটি অর্পিতার করার কথা ছিল শুনে অনেক নেটিজেনই কিন্তু বলছেন ভাগ্যিস অপরাজিতাকে কাস্ট করা হয়েছিল। কারণ তারা মনে করেন মালিনী চরিত্রটি অপরাজিতা ছাড়া আর কেউ অত সুন্দর ভাবে ফুটিয়ে তুলতে পারত না।