টলিউড

ফাঁস হলো নুসরতের চর্চিত প্রেমিক যশ ও মধুমিতার একাধিক অন্তরঙ্গ দৃশ্যের ছবি, বিছানায় ঘনিষ্ঠ যশ-মধুমিতার ছবি সামনে আসতেই নিমেষে ভাইরাল

পাঁচ পাঁচটি বছরের অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে মুক্তি পেয়েছে যশ দাশগুপ্ত এবং মধুমিতা সরকারের মিউজিক ভিডিও। স্টার জলসার ধারাবাহিক বোঝেনা সে বোঝেনার প্রবল বাণিজ্যিক সাফল্যের পর ঘরে ঘরে পাখি এবং অরন্যের জুটি খুব পরিচিতি পায়।

তবে ধারাবাহিকটি শেষ হয়ে গেছে প্রায় পাঁচ বছরেরও বেশি সময় হয়ে গিয়েছে। এর মধ্যে আর কাজ করতে দেখা যায়নি দুজনকে একসাথে। তাই এই জুটির অনুরাগীরা চাতক পাখির মতো পথ চেয়ে বসে ছিলেন কখন আবার এই দুজনকে একসাথে দেখা যাবে।

প্রথম থেকেই প্রত্যাশা ছিল যে এই জুটির কামব্যাক আবার কাঁপিয়ে দেবে। প্রত্যাশা মতোই হয়েছে কাজ। নিরাশ করেনি প্রত্যাশা। মুক্তির মাত্র তিন দিনের মধ্যেই পিরান খানের সুর দেওয়া এবং তানভীর ইভান এর গাওয়া গান ‘ও মন রে’ এর ভিউজ সংখ্যা ৩০ লক্ষ্য ছুঁয়েছে। কাছে এসেও দূরে সরে যাওয়ার কাহিনীতে মন খারাপ অনুরাগীদের।

ইতিমধ্যেই ভাইরাল হয়েছে যশ দাশগুপ্ত এবং মধুমিতা সরকারের একাধিক অন্তরঙ্গ ভিডিও। শুধু ভিডিওই নয় ভিডিওর পাশাপাশি ভাইরাল হয়েছে একাধিক অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ছবিও। কোন ছবিতে দেখা যাচ্ছে একে অপরের ঠোঁটে ঠোঁট লাগিয়ে রোমান্সে মত্ত, আবার কখনো দেখা যাচ্ছে আরো অন্তরঙ্গ দৃশ্য। তবে এই দৃশ্যগুলো চোখে পড়ছে না ভিডিওতে। কিন্তু কেন! কেন মূল ভিডিও থেকে এই অন্তরঙ্গ দৃশ্য বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে! এই প্রশ্নের খোঁজে অনুরাগীরা পথে নেমেছেন।

মিউজিক ভিডিওর শুরুতেই ধরা হয়েছে মধুমিতার বিয়ের সাজানো আসর, লাল বেনারসীতে অপেক্ষায় কোনে। ছাতনা তলায় যাওয়ার আগে পুরনো প্রেমকে দেখে চোখের সামনে নিজের চোখকে আর সামলাতে পারেননি। তবুও ইহ ভুলে মিলন হলো না তাদের। এর বদলে দেখা গেল মধুমিতার বিয়ের পিঁড়ি হাসিমুখে ধরলেন যশ।

তবে এখানেই শেষ না, মুক্তি পাওয়া ভিডিও স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে এর নেপথ্যে রয়েছে বেশ কিছু কাহিনী। যা কিছু দিনের মধ্যেই দর্শকের সামনে আসবে। ভিডিও শেষে লেখা উঠছে দেখা যাচ্ছে, ‘টু বি কন্টিনিউড’। ‘বিহাইন দা সিনস’ ভিডিও দেখা যাচ্ছে দীর্ঘ পাঁচ বছর পর অভিনেতা অভিনেত্রী একসাথে কাজ করে দুজনেই বেজায় খুশি।

Back to top button