টলিউড

‘মাতঙ্গিনী এখানে কখনও আন্দোলন করতে আসেননি’, পরিচালক সৃজিতের কায়দায় প্রধানমন্ত্রীকে বিঁধলেন সায়নী ঘোষ!

স্বাধীনতা দিবসের দিন লালকেল্লার ভাষণ দিতে গিয়ে বিপাকে পড়লেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের দিন লালকেল্লায় প্রত্যেক বারের মতো এবারেও বক্তৃতা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। বাংলার তমলুকের মাতঙ্গিনী হাজরাকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আসামের বীরঙ্গনা বলে দাবি করেন এদিন।

যে মন্তব্যকে ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়া জুড়ে বয়ে যাচ্ছে বিতর্কের ঝড়। সাধারণ মানুষের সাথে তাল মিলিয়েছেন অভিনেতা অভিনেত্রীরাও। এই বক্তব্যকে ঘিরেই সৃজিত মুখোপাধ্যায়ের সদ্যমুক্তিপ্রাপ্ত ওয়েব সিরিজ ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’ র অনুকরনে প্রধানমন্ত্রীকে বিঁধলেন সায়নী ঘোষ।

অভিনেত্রী তথা যুব তৃনমূলের সভানেত্রী নিজস্ব টুইটার হ্যান্ডেল রেক্কা ওয়েব সিরিজের পোস্টার শেয়ার করেছেন। যেখানে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি স্পষ্ট। গত বাংলার বিধানসভা ভোটের আগেই অনেকেই প্রধানমন্ত্রির বেশভূষা নিয়ে রবীন্দ্রনাথের তুলনা টেনে এনেছিলেন। বাংলা ওয়েব সিরিজের পোস্টারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ছবি বসিয়ে লেখা রয়েছে -“মাতঙ্গিনী এখানে কখনও আন্দোলন করতে আসেননি” এ রকমই একটি পোস্ট শেয়ার করতে দেখা গেছে অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ কে। যদিও এই পোস্টারটি অভিনেত্রী মস্তিষ্কপ্রসূত না। অভিনেত্রী পোষ্টের টুইটার ক্যাপশন সেটি নিজে জানিয়েছেন। অভিনেত্রী ক্যাপশনের মারফত উল্লেখ করেছেন, “হোয়াটসঅ্যাপ মারফৎ পেলাম। বাঙালিদের জন্য খানিক রসিকতার সময়।”

অভিনেত্রী সায়নী ঘোষের এই ঘিরে বেজায় শোরগোল পড়েছে নেট দুনিয়ায়। নেটিজেন এর একাংশ বেজায় মজা পেয়েছেন তার এই পোস্টে। তবে উল্লেখ্য এই যে গত সপ্তাহে হইচইয়ের প্ল্যাটফর্মের মুক্তি পেয়েছিল ‘রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনও খেতে আসেননি’। এই ওয়েব সিরিজের রিভিউ খুব একটা ভালো নয় ওয়েব সিরিজটি দেখে পরিচালককে রীতিমতো তুলোধোনা করেছেন সিনেমা প্রেমী মানুষের একাংশ।

Back to top button