টলিউড

শ্রাবন্তীর ছেলে খুব ‘হোমোফোবিক’! ‘যৌন পরিচয় নিয়ে গালিগালাজ করেছে’, শ্রাবন্তী পুত্র অভিমুন্য কে ঘিরে বিস্ফোরক মন্তব্য জনপ্রিয় ইউটিউবার স্যান্ডি সাহার

ফের বিতর্কে জড়ালেন স্যান্ডি সাহা। কিছুদিন আগেই অভিনেতা অঙ্কুশ হাজরার সাথে অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা সেনকে নিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে ছিলেন কলকাতার জনপ্রিয় ইউটিউবার স্যান্ডি সাহা। সে ক্ষেত্রে অভিযোগ আনা হয়েছিল কলকাতার জনপ্রিয় ইউটিউবার অঙ্কুশের বান্ধবী ঐন্দ্রিলাকে বডি শেমিং করেছেন। তবে এবারে স্যান্ডি সাহার অভিযোগ শ্রাবন্তী পুত্র অভিমুন্য চট্টোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। স্যান্ডি সাহা জানিয়েছেন তাকে যৌন পরিচয় নিয়ে অসভ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছে শ্রাবন্তী পুত্র অভিমুন্য।

বৃহস্পতিবার রাতে জনপ্রিয় ইউটিউবার স্যান্ডি সাহা তার এক বন্ধুর সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলছিলেন। সম্ভবত সেই সময়ে উপস্থিত ছিলেন অভিমুন্য। অভিমুন্যর উপস্থিতি বুঝতে পেরে স্যান্ডি সাহার বন্ধুকে অনুরোধ করেন,‘‘তোর পিছনে কে আছে? তার সঙ্গেও কথা বলি।’’ এরপর স্যান্ডি সাহার বন্ধু অভিমুন্য দেখে ক্যামেরা তাক করতেই অসভ্য ভাষায় গালিগালাজ করতে শুরু করেন অভিমুন্য। তিনি সরাসরি জানিয়ে দেন এমন এক মানুষের সাথে কথা বলতে তিনি নারাজ।

এই বিষয়ে অপমানিত হয়েছেন স্যান্ডি সাহা। যথেষ্ট মর্মাহত হয়ে সংবাদমাধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে স্যান্ডি সাহা বলেছেন, ‘শ্রাবন্তীদি সমকামিতাকে চিরকাল সম্মান দিয়েছেন, সমর্থন করেছেন। তাঁর ছেলের মুখে এমন শব্দ শুনব ভাবতেও পারিনি’। এই বিষয়টি পুরোটাই অভিমুন্য শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়কে জনপ্রিয় ইউটিউবার স্যান্ডি সাহা মেসেজের মাধ্যমে জানিয়েছেন। তবে কোনো উত্তর মেলেনি অপর দিক থেকে। তবে এই রাগের কারণ কি! এই বিষয়ে স্যান্ডি সাহা খানিক ভেবে তারপর উত্তর দিয়েছেন।

অভিমুন্য রাগের কারণ এ প্রসঙ্গে কলকাতার জনপ্রিয় ইউটিউবার স্যান্ডি সাহা মনে করেন হয়তো অতীতে বানানো তার কোন ভিডিওকে নিয়েই এই ক্ষোভ। অতীতে স্যান্ডি সাহা অভিমুন্য শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় কে নিয়ে একটি ভিডিও বানিয়ে ছিলেন। যে প্রসঙ্গে তিনি নিজে বলেছেন,‘‘খুবই মজা করে কিছু কথা বলেছিলাম অভিমন্যুর মায়ের সম্পর্কে। কিন্তু সেই ভিডিয়ো নিয়ে পরবর্তীতে বিস্তারিত কথাও হয়েছিল শ্রাবন্তীদির সঙ্গে। তার পরেও কি অভিমন্যুর রাগ থাকতে পারে?’’

অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায় কে আক্রমণ করে যে ভিডিওটি বানিয়ে ছিলেন সে ক্ষেত্রে যদি কোন রকম ভাবে শ্রাবন্তী পুত্র অভিমুন্যর কোন রাগ বা ক্ষোভ থেকেও থাকে তাহলে কি যৌন পরিচয় নিয়ে এমন কোনো অশ্রাব্য শব্দ ব্যবহার করা উচিত! এই প্রসঙ্গে জনপ্রিয় ইউটিউবার স্যান্ডি সাহার সংযোজন,‘‘অভিমন্যুকে আমি অনেক দিন ধরে চিনি। কিন্তু এটা জানতাম না যে ও এতটা হোমোফোবিক। এই এক দিনের বাক্যালাপে সেটা স্পষ্ট।’’

Back to top button