গাঁটছড়া বাঁধতে চলেছেন গৌরব-দেবলীনা, মেহেন্দি হাতেই জিমে হবু কনে

টলিপাড়ায় লেগেই রয়েছে একের পর এক বিয়ে৷ সম্প্রতি বিয়ে সারলেন অভিনেতা অনির্বাণ৷ এবার সাতপাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন দেবলীনা আর গৌরব৷ পেশায় দুজনেই অভিনেতা৷ দেবলীনা অভিনেত্রী হওয়ার পাশাপাশি একজন দক্ষ নৃত্যশিল্পীও বটে৷ গতবছরই রঙ্গবতী গানে নেচে লাইমলাইটে এসেছেন দেবলীনা৷ অন্যদিকে অভিনেতা হওয়ার পাশাপাশি গৌরবের আরেকটি পরিচয়,সে হল মহানায়ক উত্তম কুমারের নাতি৷

দেবলীনা আর গৌরব এই করোনা আবহেই সারতে চলেছেন তাদের বিয়ে৷ তিনবছর ধরে তারা ডেট করছেন একে অপরকে৷ আগামী ৯ই ডিসেম্বর চার হাত এক হতে চলেছে৷ তবে বিয়ে বলে পাত্র পাত্রী নিজেদের কাজ ভুলে নেই একেবারেই৷ টলিউডে নিজের জায়গা করে নিতে পোড়াতে হয়েছে অনেক কাঠখড়,ফলে নিজের বিয়ের সময়েও নিজের প্রতি যত্নশীল দেবলীনা৷ বাড়িতে বিয়ের সানাই বেজে গেছে,কনে হাতে পড়েছেন মেহেন্দি৷ পায়ে পড়েছেন আলতা৷ আর এই হাতে মেহেন্দি নিয়েই জিমে গিয়ে করলেন “ডেড—লিফ্ট”৷

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Devlina Kumar (@devlinakumar)

বাংলা সিনেমার জগতে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে দেবলীনাকে করতে হয়েছে অনেক পরিশ্রম৷ শরীর থেকে মেদ ঝরিয়ে করতে হয়েছে “টোনড—বডি”৷ তাই বিয়ের আগের দিনগুলোতেও ফাঁকি নয়৷ মেহেন্দি হাতেই হবু কনে চলে গিয়েছেন জিমে শরীর চর্চা করতে৷ ফিটনেস বজায় রাখতে দেবলীনার রোজকার রুটিমে জিম মাস্ট৷ এমনকি তিনি লকডাউনেও কলকাতার রাস্তায় চালিয়েছেন সাইকেল৷ দেবলীনার মতে,সাইক্লিং স্বাস্থ্যের পক্ষে অত্যন্ত উপকারী৷

জিমে যাওয়ার আগে দেবলীনা শেয়ার করেছেন তার মেহেন্দি হাতের ছবি৷ এদিন নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যাণ্ডেলে মেহেন্দি পরে ফুলের সাজে গৌরবের হবু স্ত্রী ছবি শেয়ার করে লিখেছেন,”মেহেন্দি লাগ গেয়ি হে হাতো মে”৷ তবে এরমধ্যেও পাত্রপাত্রী ব্যস্ত কাজে,ফলে বেশিরভাগ কাজ সামলাচ্ছেন পরিবারের লোকেরাই৷ “রবলীনা”—র বিয়ের অনুষ্ঠান আপাতত হবে কাছের বন্ধুবান্ধব আর পরিবারের লোকজন নিয়েই৷ মার্চ মাসে গ্র্যাণ্ড রিসেপশনের আয়োজন হবে বলেও জানা গেছে৷