অবশেষে করোনাজয়ী অনামিকা সাহা, হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন কিংবদন্তি অভিনেত্রী

করোনার গ্রাস ক্রমশ বেলাগাম হয়ে ছড়িয়ে পড়ছে গোটা দেশে। সম্প্রতি অভিনেত্রী অনামিকা সাহা (anamika saha) করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। প্রথমে হোম আইসোলেশনে থাকলেও কো-মর্বিডিটির কারণে অনামিকার শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি হয়েছিল। ফলে তাঁকে দ্রুত নিকটবর্তী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখন তিনি অনেকটাই সুস্থ। অনামিকাকে হাসপাতাল থেকে ডিসচার্জ করে বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হলেও অনামিকার শরীর এখনও যথেষ্ট দুর্বল।

অনামিকা করোনা জয়ী হলেও এখন তাঁকে সম্পূর্ণ বিশ্রামে থাকতে বলেছেন চিকিৎসকরা। কারণ করোনা ভাইরাসের হানায় অনামিকার ফুসফুসে ক্রমশ সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েছিল। শরীরে অক্সিজেনের ঘাটতি দেখা দিয়েছিল। অনামিকার শারীরিক পরিস্থিতি অত্যন্ত আশঙ্কাজনক হয়ে পড়েছিল। এই সময় তাঁকে নন রিব্রেথার মাস্কের সাহায্যে অক্সিজেন দেওয়া হয়। ধীরে ধীরে অনামিকার অবস্থার উন্নতি হয়।

কিন্তু এই মুহূর্তে প্রশ্ন হল, অনামিকার মতো বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর করোনায় আক্রান্ত হয়ে আশঙ্কাজনক পরিস্থিতির মুখোমুখি হওয়ার দায় কার? অনামিকা আকাশ আট-এর জনপ্রিয় সিরিয়াল ‘হয়তো তোমারই জন্য’-য় অভিনয় করছিলেন। একই সিরিয়ালে অভিনয় করছিলেন চৈতী ঘোষাল (chaiti ghoshal)।

তিনিও করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। ‘হয়তো তোমারই জন্য’-র নায়ক জিতু কমল (jeetu kamal) কিছুদিন আগেই বিস্ফোরক হয়ে বলেছিলেন, চৈতী বারবার বলার পরেও সিরিয়ালের টেকনিশিয়ানরা অনেকেই মাস্ক পরতেন না। এমনকি জিতু বলেন, অনেকে নাকি করোনা লুকিয়ে কাজও করেছেন। জিতুর এই অভিযোগ সত্যি হয়, তাহলে অনামিকা, চৈতীর মত বর্ষীয়ান কলাকূশলীদের নিরাপত্তা কি সত্যিই সুনিশ্চিত রয়েছে?