টলিউড

বিজেপি থেকে সরে এসে এবারে সরাসরি চপ শিল্পে মন দিলেন অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী, তুমুল কটাক্ষ নেটিজেনদের

শ্রাবণ মাস, সারা দিন টুপটাপ বৃষ্টি পড়েই চলেছে। এই বৃষ্টির দিনে সন্ধ্যেবেলা চা পকোড়া বা চপ মুড়ি হলে জমে যায় মরসুম। কিন্তু বাইরে করোনা প্রকোপ, বাইরে বেরিয়ে তেলে ভাজা কিনে আনায় ঝুঁকি রয়েছে তাই বাড়িতে বসেই নিজের হাতে চপ বানিয়ে ফেলেন অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী।

সম্প্রতি চপ ভাজার সেই ছবি নিজের ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেন অভিনেত্রী। তবে সেই চপ ভাজার ছবি যে ট্রোলের কারণ হয়ে দাঁড়াবে তা কে জানতো। ছবি পোস্ট করার সঙ্গে সঙ্গেই নেটিজেনদের আক্রমণ শুরু। রাজনীতি মন্তব্য টেনে এনেছেন অনেকে কেউ কেউ কমেন্ট করেছেন চপ শিল্প।

বর্তমান যুগে ট্রোলিং যেন একটা ট্রেন্ড এ পরিণত হয়েছে। সেলিব্রেটিরা যায় পোস্ট করুক না কেন তা নিয়ে ট্রল লেগেই রয়েছে নিত্যদিন। তাদের ছবি, ভিডিও, বিভিন্ন রকম পোস্ট সবেতেই নেটিজেনরা ট্রোলিং করেই চলেছেন। এবারে ট্রোলের শিকার হলেন অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী। নিজের বাড়িতে চপ ভাজার ছবি পোস্ট করে নেটিজেনদের কু মন্তব্যের আক্রমণ হলেন তিনি।

কয়েকদিন আগেই রাজনৈতিক ময়দানে থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তীর ২০২১ এর আগে ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেছিলেন এই অভিনেত্রী। তবে একুশের বিধানসভা ভোটের পরে তিনি রাজনৈতিক ময়দান থেকে ধীরে ধীরে সরে আসেন। বিধানসভা ভোটে হারার পরে বৃহস্পতিবার নিজেই রাজনৈতিক ময়দানে থেকে সরে আসার খবর সকলকে জানান তিনি।

চলতি বছরের ৮ই মার্চ ভারতীয় জনতা পার্টিতে যোগদান করেছেন অভিনেত্রী। শ্যামপুকুরের প্রার্থী হিসেবে ভোটেও দাঁড়িয়েছিলেন তিনি। তার বিপক্ষে ছিল তৃণমূল প্রার্থী কালিপদ মন্ডল। কালিপদ বাবুর কাছে ভোটে হেরে যান অভিনেত্রী তার জেরেই কি রাজনৈতিক ময়দানে থেকে সরে আসছেন?

এই নিয়ে বিভিন্ন তর্ক-বিতর্ক হলেও অভিনেত্রী স্পষ্ট জানান “রাজনৈতিক ময়দানে নামতে হলে বিশেষ পড়াশোনা করে নামতে হয়, বর্তমানে আমি আর কোনো রকম রাজনৈতিক রঙ নিজের মধ্যে লাগাতে চাইছি না। এখন পুরোপুরি অভিনয় জগতে ফিরে আসছি এবং নিজের অভিনয়ের দিকে ফোকাস করতে চাইছি।” তবে রাজনৈতিক দলে যোগ দেওয়া এবং ভোটে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়ে কোনো রকম কোনো আফসোস নেই বলেই জানান অভিনেত্রী তনুশ্রী চক্রবর্তী।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Tnusree C (@tonushree_10)

Back to top button