“কাকলি ফার্নিচার” জ্বরে কাবু ফেসবুক থেকে ইনস্টাগ্রাম, এবার দলে যোগদিলেন অভিনেনেত্রী ঋতাভরী বানালেন ইনস্টাগ্রাম রীল!

“দামে কম মানে ভালো, কাকলি ফার্নিচার”, গত কয়েকদিন ধরে ফেইসবুক ইনস্টাগ্রাম খুললে দেখা মিলছে এই বিজ্ঞাপনের। সোশ্যাল সাইটে তমুলভাবে ভাইরাল হয়েছে এই বাংলাদেশের ফার্নিচারের বিজ্ঞাপন।

কেউ বানাচ্ছে মিম, তো কেউ আবার ভিডিও। সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে টেলি তারকা কেউই বাদ পড়েনি এই ট্রেন্ড থেকে।

সম্প্রীতি এই ট্রেন্ডে গা ভাসিয়েছেন অভিনেত্রী ঋতাভরী ও তার বোন মধুজা। কাকলি ফার্নিচারের অডিও দিয়ে বানিয়েছেন ইনস্টাগ্রাম রীল এবং তা ইতিমধ্যেই ভাইরালও হয়ে গিয়েছে।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে ঋতাভরী ও মধুজা মুখে মাস্ক পরে কখনো মাথা দোলাচ্ছেন আবার কখনো কোনো ফার্নিচারে বসে পা দোলাচ্ছেন। আবার কুশনের উপরে বসে দিব্বি চলছে খুনসুটি। ভিডিওর শেষে অবশ্য মধুজা কুশন থেকে পরেই যান।

ভিডিওটি দেখে ঋতাভরীর ভক্তকুল বেজায় খুশি। লাইকের বন্যার সঙ্গে কমেন্টে কমেন্টে ভোরে গেছে ঋতাভরীর দেওয়াল। অনেকে আবার প্রশংসা করে বলেছেন এই খারাপ সময়েও অভিনেত্রী দর্শকদের মনোরঞ্জনের আপ্রাণ চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন আবার এইবার সঙ্গ পেয়েছেন বোনেরও।

ঋতাভরীর ভিডিওটি তার মা শতরূপা নিজের একাউন্টে রিপোস্ট করে মজা করে লিখেছেন “বাড়িতে থেকে দুই মেয়েরই মাথা খারাপ হয়েগেছে।”

দিনকয়েক ধরেই সোশ্যালমিডিয়াতে ঘুরপাক খাচ্ছে “কাকলি ফার্নিচারের” ভিডিও। যেখানে দেখা যাচ্ছে দুটি বাচ্চা মেয়ে কিছুটা রোবটের মতো মন্ত্র উচ্চারণ করে বলে যাচ্ছে, “দামে কম মানে ভাল কাকলি ফার্নিচার।” কাকলি ফার্নিচার বাংলাদেশের একটি ফার্নিচারের বিপনী।

বাংলাদেশের এই বিপণির বিজ্ঞাপন এতো দ্রুত ভাইরাল হবে কেউ আসা করতে পারেনি। তাহলে কি লকডাউনের ফলেই এতো ভাইরাল হলো নাকি পিছনে অন্য কোনো কারণ। সে যাই হোক সাধারণ মানুষ থেকে সেলিব্রিটি সবাই যে এই ট্রেন্ডে মেতে রয়েছেন তা বেশ ভালোই বোঝা যাচ্ছে।