বলিউড

শাহরুখ খানের ছেলের মতো নেশা করে নয়, সাঁতারের প্রতিযোগিতা জিতে রূপোর পদক জিতে দেশ ও বাবা আর মাধবন এর মুখ উজ্জ্বল করল ছেলে বেদান্ত

আমরা প্রত্যেকেই অভিনেতা আর মাধুবান কে চিনি। এটাও জানি যে অভিনেতার পুত্র একজন সাঁতারু। বাবা অভিনয়জগতে থাকলেও ছেলে স্পোর্টসের দিকেই বেশি আগ্রহী। তাই ছেলেকে কোনো রকম কোনো বাধা দেননি অভিনেতা। ছেলে যেটা হতে চায় সব সময় সেই দিকেই ছেলেকে উৎসাহিত করেছেন তিনি এবং তার স্ত্রী। সাঁতার প্রতিযোগিতায় একের পর এক পদক জিতে বাবা-মার মুখ উজ্জ্বল করেছে ছেলে বেদান্ত। সম্প্রতি ড‍্যানিশ ওপেন ২০২২ সাঁতার প্রতিযোগিতায় রুপোর পদক জিতে বাবা-মাকে গর্বিত করেছে বেদান্ত। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেলের সেই সুন্দর মুহূর্ত ভিডিও করে শেয়ার করেছেন অভিনেতা মাধবন। ১৫০০ মিটার ফ্রিস্টাইল ইভেন্টে মাত্র 15 মিনিটে সাঁতার কেটে রুপোর পদক জিতে নিয়েছে বেদান্ত। এছাড়াও বেদান্তের প্রশিক্ষককে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছেন অভিনেতা।

ক্রীড়া জগতে বেদান্তের প্রতিভা ইতিমধ্যেই সকলের সামনে ফুটে উঠেছে। সাঁতার প্রতিযোগিতায় ইতিমধ্যেই ৭টি পদক জিতে নিয়েছে সে। আর এবারে আগামী দিনে বেদান্তের লক্ষ্য হলো অলিম্পিক। অলিম্পিক এর জন্য ইতিমধ্যে এই দেশে তেমন কোন ভালো ব্যবস্থা নেই সেখানে তাই জন্য ছেলেকে নিয়ে ইতিমধ্যেই দুবাই পাড়ি দিয়েছে অভিনেতা। ছেলে যাতে সেরা প্রশিক্ষণ পায় সেই দিকে সব সময় নজর রাখছে মাধবন এবং তার স্ত্রী। তাই ছেলেকে নিয়ে দুজনেই দুবাইতে পাড়ি দিয়েছেন।

অভিনেতা জানিয়েছেন যে ‘বর্তমানে মুম্বাইয়ে যে সমস্ত সুইমিংপুল গুলো রয়েছে সেগুলো করোনাকালীন পরিস্থিতির জন্য বন্ধ। তাই ভালো প্রশিক্ষণের জন্য ছেলেকে নিয়ে দুবাই পাড়ি দিচ্ছেন আর বেদান্ত হলো জাতীয় স্তরের বিজেতা এবারে তার লক্ষ্য অলিম্পিকে নিজের জায়গা করে নেওয়া। তাই এখন থেকেই অলিম্পিকের জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করে দিয়েছে বেদান্ত।’

সংবাদমাধ্যমে মাধবন জানিয়েছেন যে ‘অভিনয় জগতে আসার বিন্দুমাত্র আগ্রহ নেই বেদান্তর। তার ইচ্ছে সে বড় স্পোর্টসম্যান হবে বড় সাঁতারু হবে। সেই ইচ্ছেকেই আমরা বাবা-মা দুজনই প্রাধান্য দিয়েছে। ছেলের ইচ্ছের যথেষ্ট গুরুত্ব রয়েছে আমাদের কাছে আমি মনে করি আমার পেশার থেকে অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ ওর এই সাঁতারু হওয়া। তাই সব সময় ওকে সাপোর্ট করে গেছি আমরা।’

 

View this post on Instagram

 

A post shared by R. Madhavan (@actormaddy)

Back to top button