বলিউড

সম্পর্ক টিকবে না জেনেও বিয়ে করেছিলেন শিল্পা, রাজের কোটি কোটি টাকার সম্পত্তির লোভ সামলাতে পারেননি শিল্পা শেট্টি

বর্তমানে রাজ কুন্দ্রা খবরের শিরোনামে রয়েছেন। তার পর্নোগ্রাফির ব্যবসা ফাঁস হয়ে যাওয়ার পর থেকে প্রায় প্রতিদিনই কোন না কোন খবর ছাপা হচ্ছে তাকে নিয়ে।

তবে রাজ কুন্দ্রার স্ত্রী অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি এই ব্যাপারে স্বামীকে নির্দোষ প্রমাণের জন্য উঠে পড়ে লেগেছেন। ২০০৯ সালে শিল্পা এবং রাজ সাত পাকে বাঁধা পড়েন। বর্তমানে রাজি এবং শিল্পার একটি পুত্রসন্তান ও একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। পুত্রের নাম বিহান এবং কন্যার নাম সামিশা।

এই জুটির প্রেম এবং বিবাহ নিয়েও রয়েছে বহু তর্ক বিতর্ক ২০০৯ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার আগে রাজ বিবাহিত ছিলেন। তার প্রথম পক্ষের স্ত্রীর নাম ছিল কবিতা।

কবিতার কোলে তখন দু মাসের এক ছোট্ট এক কন্যা সন্তান সেই অবস্থাতেই রাজ কবিতাকে ডিভোর্স দিয়ে শিল্পা শেট্টি কে বিয়ে করেন। শিল্পা শেট্টির জন্যই রাজ এবং কবিতার সর্ম্পকে ভাঙ্গন ধরেছে বলে দাবি করেন কবিতা। তবে এই বিতর্কিত প্রেমকাহিনী নিয়ে কয়েক বছর আগেই রাজ একটি সাক্ষাৎকারে মুখ খোলেন।

শিল্পা র সাথে আলাপ হয় রাজের শিল্পার নিজস্ব ম্যানেজারের সূত্র ধরে, তখন সবে সবে শিল্পা বলিউডে এসেছেন এবং সদ্য বিগ ব্রাদার শো তে বিজয়ী হয়েছেন। শিল্পাকে একটি নতুন পারফিউমের বিজ্ঞাপনের মুখ হিসেবে দেখতে চাইছিলেন রাজ।

সেই সূত্র ধরেই প্রথম দেখা দুজনের এবং প্রথম দেখাতেই রাজ শিল্পার মন জয় করে নেয়। শিল্পার মায়ের পায়ে প্রণাম করে রাজ এবং তা দেখি শিল্পা শেট্টি গলে জল। কিন্তু রাজের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়াতে একদমই রাজি ছিলেন না তিনি, তবে হালকা হালকা ভালোলাগা ছিল তার মধ্যে।

এক সাক্ষাৎকারে জানান “যখন আমি বুঝতে পারি শিল্পার ও আমাকে কিছুটা ভালো লাগে তখন আমি আর দেরি করিনি, ভালবাসার প্রস্তাব দিয়ে ফেলি শিল্পাকে। কিন্তু তখনও সরাসরি নাকচ করে দেয় বলে আমাদের সম্পর্ক কখনো টিকবেনা শিল্পা বরাবরই ঠোটকাঁটা।

কিন্তু আমি হাল ছাড়িনি ওকে জিজ্ঞাসা করছিলাম কেন টিকবেনা সম্পর্ক তার উত্তরে শিল্প জবাব দিয়েছিল আমি মুম্বাইয়ের বাসিন্দা এবং আমি আমার দেশ ছেড়ে অন্য দেশে কখনোই যেতে পারবো না এবং তুমি লন্ডনের বাসিন্দা সুতরাং দুজনের পথ আলাদা তাই আমি এই সম্পর্কে জড়াতে চাইনা।”

পরদিনই রাজ বিখ্যাত প্রযোজক বাসু ভাগনানিকে, ফোন করে মুম্বাই একটি বাড়ি কিনতে চান এবং প্রযোজক সঙ্গে সঙ্গে একটি বাড়ি এরেঞ্জ করেন তাদের জন্য বাড়ি কেনার পরে শিল্পাকে তিনি ফোন করে জানান তিনি শিল্পার জন্য মুম্বাই একটি বাড়ি কিনে ফেলেছেন।

অমিতাভ বচ্চনের বাড়ি ঠিক সামনেই রাজ এবং শিল্পার বাস ভবন গড়ে ওঠে। এরপরে শিল্পা নিজেও আর দেরি করেননি নিজের মনের কথা জানিয়ে দেন রাজ কে। এরপরে বেশ কয়েক মাস চুটিয়ে প্রেম করেন রাজ শিল্পা ২০০৯ সালে সাত পাকে বাঁধা পড়েন এই জুটি।

জীবনের সমস্ত ভালো সময়, খারাপ সময়ে দুজন দুজনের পাশে থেকেছে বরাবর একে অপরের হাত ধরেই পেরিয়ে এসেছে সমস্ত রকম বাধা। কিন্তু বর্তমানে রাজের পর্নোগ্রাফির ব্যবসা ফাঁস হবার পরে শিল্পা শেঠি একেবারেই ভেঙে পড়েছেন। মিডিয়ার সামনে রাজকে নির্দোষ প্রমাণ করার জন্য সমস্ত রকম চেষ্টা করছেন তিনি, তিনি এও জানিয়েছেন যে এই পর্নোগ্রাফি ভিডিও সম্বন্ধে তিনি কিছুই জানতেন না।

Back to top button