বলিউড

বাবা সাইফ আলি খান এবং করিনার অনস্ক্রিন চুমুকে পূর্ণ সমর্থন করেন সারা আলি খান, সারার জন্যই আরো একবার অভিনেতা অভিনেত্রীদের সঙ্গে চুম্বন খাবার সিদ্ধান্ত নিলেন সইফ-করিনা

বলিউডের বেবো অর্থাৎ করিনা কাপুর খান এবং সাইফ আলি খান বেশ অনেকদিন ধরেই নিজেদের সুখী দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন। ১৯৯১ সালে অমৃতা সিংয়ের সঙ্গে প্রথম বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন সাইফ আলি খান। কিন্তু সেই বিবাহ বেশিদিন টেকাতে পারেনি দুজনে।

২০০৪ সালে বিবাহ বিচ্ছেদ হয় অমৃতা এবং সাইফের। তারপরেই সাইফ নিজের জীবনসঙ্গী হিসেবে বেছে নেন কারিনাকে। তবে কারিনার সঙ্গে দ্বিতীয় বিবাহ নিয়ে সাইফের প্রথম পক্ষের সন্তানদের কারোরই কোনো আপত্তি ছিল না। বাবার এই সিদ্ধান্তকে তারা স্বাভাবিকভাবেই নিয়েছিলেন।

তবে এর মাঝে নিজের ২৬ তম জন্মদিনে এক অজানা তথ্য জানেন সাইফকন্যা সারা আলি খান। কারিনা কাপুর খান একটি সাক্ষাৎকারে সকলের সামনে বলেন যে অনস্ক্রিন সে আর সাইফ কোন অভিনেতা অভিনেত্রী কে চুম্বন করবেন না। এই সিদ্ধান্ত সাইফ-কারিনা দুজন মিলে নিয়েছিলেন। এই কথাটি শোনার পরে সারার প্রতিক্রিয়া একটু অবাক করেছিল।

তিনি কারিনাকে বলেন “এই ধরনের সিদ্ধান্তকে আমি খুবই বোকা বোকা মনে করি, অভিনয়ের স্বার্থে আমরা সিনেমাতে অভিনেত্রী বা অভিনেতা কে চুমু খেতেই পারি এটাতে কোনো রকম কোনো ক্ষতি নেই”।

মেয়ে সারার এই কথাকে সাইফ এবং কারিনা সমর্থন করেন দুজনে এবং পরবর্তীতে নিজেদের মতামত পাল্টান। এমনিতেই করিনা সঙ্গে সারার খুব ভালো সম্পর্ক, বলা যায় এক ধরনের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক দুজনকে। মাঝেমধ্যেই দুজনকে শপিংমলে দেখা যায় একসঙ্গে। মাঝে মধ্যেই একসাথে ঘুরতে যান তারা। বাড়িতেও সারা তার ছোট ভাই তৈমুর এবং জেহ সঙ্গে ভালোভাবে সময় কাটান। করিনা এবং সরা দুজনকেই দুই ছেলের সঙ্গে খুনসুটি করতেও দেখা যায় মাঝেমধ্যে।

Back to top button