বলিউড

‘মায়েরা সব পারে’! ৫ মাসের মেয়েকে কোলে নিয়েই অডিশন দিল মা! গান শুনে ভাষা হারালো নেটিজেনরা, মুগ্ধ নেটপাড়া

১৬ই সেপ্টেম্বর থেকে জি টিভিতে শুরু হয়ে গিয়েছে অন্যতম জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো সারেগামাপা। দেখানো শুরু হয়ে গিয়েছে অডিশনের পর্বগুলিও। এবছর সারেগামাপার মূল বিচারক আসনের রয়েছেন বিশাল দাদলানি, হিমেশ রেশামিয়া, শঙ্কর মহাদেবন। সম্প্রতি সারেগামাপার অডিশন পর্বে একজন প্রতিযোগীর গান গাওয়ার ভিডিও ও তার জীবনে লড়াই করে বেঁচে থাকার গল্প ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়। পাঁচ মাসের মেয়েকে কোলে নিয়েই গাইলেন গান।

সারেগামাপাতে সঞ্জনা ভাট নামে একজন প্রতিযোগী গান গাওয়ার জন্য এসে উপস্থিত হয়েছিলেন মঞ্চে। নিজের পাঁচ মাসের মেয়েকে কোলে নিয়েই গান গেয়েছেন। তার গানে রীতিমত মুগ্ধ হয়েছেন উপস্থিত সমস্ত বিচারকরা। সকালে উঠে দাঁড়িয়ে তার জন্য হাততালি দেন। মেডেল নিয়েই পরের রাউন্ডে পা রাখলেন সঞ্জনা।

‘আও তুমি চাঁন্দ পে লে যায়ে’ গানটি সোনার কন্ঠ শুনে রীতিমত মুগ্ধ হয়েছেন সকলে। ইমোশনাল হয়ে গিয়েছিলেন বিচারক হিমেশ রেশমিয়াও। তিনি জানান ছোটবেলা থেকেই এই গানটি তার খুব পছন্দের। অডিশন দিতে এসে তিনি সেই গানটি গাইলেন এবং সফল হলেন। তার গান শেষে বিচারকদের মধ্যে থেকে বিশাল দাদলানি নিজে উঠে গিয়ে তার মেয়ের গলায় মেডেল পরিয়ে দিলেন। আর এরপরই আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েন সঞ্জনা এবং তার স্বামী।

সঞ্জনা জানান, তার জন্মের পরেই তার বাবা মারা গেছিলেন। মামা মামীর কাছেই মানুষ হয়েছেন তিনি। ছোটবেলা থেকেই টিভিতে সারেগামাপা লিটল চ্যাম্পস দেখতেন এবং ভাবতেন তিনিও একদিন মঞ্চে গান গাইবেন। সকলে তার জন্য হাততালি দেবে। সেই স্বপ্নই পূরণ করার উদ্দেশ্যে সারেগামাপার মঞ্চে স্বামী ও মেয়ের সাথে পা রাখলেন সঞ্জনা এবং সফলও হলেন। বর্তমানে তার পড়াশোনা করার ইচ্ছা থাকায় তার স্বামী তাকে গ্রাজুয়েশন করাচ্ছেন। নিজের স্ত্রীয়ের স্বপ্ন পূরণ করতেই মুম্বাইতে এসেছেন তারা। এমন স্বামী পেয়ে তিনি যে খুবই গর্বিত তার কথাতেই বোঝা যাচ্ছিল। তাদের জীবনে কষ্টের মাঝেও ভালোবাসা খুঁজে নেওয়ার গল্প শুনে রীতিমতো আবেগপ্রবণ হয়ে পড়েছিলেন সারেগামাপার বিচারকরাও।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by ZEE TV (@zeetv)

Back to top button