বলিউডStory

বলিউডের জনপ্রিয় কমেডিয়ান অভিনেতা মনোজ পাহওয়ার এক সময় নিজের পরিবার এর বিরুদ্ধে গিয়ে অভিনয় জগতে এসেছিলেন, নিজের পরিশ্রমেই আজ তিনি একজন জনপ্রিয় অভিনেতা

মনোজ পাহওয়া একজন ভারতীয় চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন অভিনেতা যিনি কমেডি সিরিজ অফিস অফিসে ভাটিয়ার ভূমিকায় অভিনয় করার জন্য বিখ্যাত। তিনি চলচিত্র জীবনে অভিনেতা হিসাবে ৪৫ টিরও বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন।

একটি পাঞ্জাবি পরিবারের ছেলে মনোজ। তার পূর্বপুরুষরা পাকিস্তান এর অন্তর্গত পাঞ্জাবের বাসিন্দা ছিলেন।
দেশ ভাগের পর তারা স্বপরিবারে দিল্লী তে চলে আসেন। ছোটো থেকে কোনোদিনও মেধাবী ছাত্র ছিলেন না মনোজ, তবে অভিনয় এর প্রতি ঝোঁক তার বরাবর।

স্কুলে নাটকে সবসময় অংশগ্রহণ করতেন। নিজের অভিনয় এর জন্যই সহপাঠী দের মধ্যে জনপ্রিয় ছিলেন তিনি। পাড়ায় বিভিন্ন নাটক এও অংশ নেন, এমনকি পাড়ায় রামলীলা তেও যোগদান করেছেন।

মনোজের বাবার গাড়ি সারানোর গ্যারেজ ছিল। পরিবার এর কেউ অভিনয় জগতের না হওয়ায় তার ইচ্ছের কেউ গুরুত্ব দেয়নি। তবে তিনি দমে যান নি, নিজের ভিতরে অভিনেতা হওয়ার ইচ্ছে কে জাগিয়ে রেখে ছিলেন। দিল্লির ন্যাশনাল স্কুল থেকে পাশ করার পর তিনি দিল্লির থিয়েটার দলে যোগ দেন।

১৯৮৪ সালে ভারতের প্রথম ধারাবাহিক ‘হুম লোগ’ এ অভিনয় করেন তিনি। দিনে তিনদিন দূরদর্শনে এই ধারাবাহিক সম্প্রচারিত হতো। অভিনয় জীবন এর মাঝ পথে তার বাবার মৃত্যু হয়। পরিবার এর সব চেয়ে বড় সন্তান হওয়ার জন্যে মাঝ পথেই অভিনয় ছেড়ে আবার দিল্লী তে ফেরত চলে যান।

এরপর বাবার ব্যাবসা সামলান, ছোটো ভাই ব্যাবসা যোগ্য হয়ে উঠলে তার হাতে সমস্ত দায়িত্ব দিয়ে আবার মুম্বাই ফিরে এসে অভিনয়ে যোগ দেন।

সীমা ভার্গব সাথে ১৯৮৮ সালে মনোজ পাহওয়া এর বিয়ে হয়। তারা দুজনেই হাম লোগ ধারাবাহিকে একসাথে কাজ করেছেন। সীমা নিজেও একজন বলিউড এর জনপ্রিয় অভিনেত্রী। তাদের দুজনের দুজন সন্তান রয়েছে।

এখনো পর্যন্ত মনোজ ৫০ টির ও বেশি সিনেমা তে অভিনয় করেছেন। বলিউড ছাড়াও তিনি পাঞ্জাবি সিনেমা তেও কাজ করেছেন। নিজের অভিনয় এর যোগ্যতায় আজ তিনি সকলের কাছে এত জনপ্রিয়।

Back to top button