মালাইকার এই নোংরামির জন্য চরম বিপদে পড়েছিল আরবাজ খান , শেষ পরিণতিতেই কি হয়েছিল ‘Divorce’

ফের নেটদুনিয়া উত্তাল হয়েছে মালাইকাকে নিয়ে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও সমানভাবে জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। বলিউডের জনপ্রিয় দম্পত্তির তকমাও ছিল মালাইকা আরোরা এবং আরবাজ খানের। তাদের অনস্ক্রিন রসায়ন সকলেরই মনে ধরেছিল।

মালাইকা আরোরা এবং আরবাজ খান একসময়কার বলিউডের জনপ্রিয় জুটির মধ্যে অন্যতম ছিল। কিন্তু দুজনেই এখন আলাদা।

আরবাজকে নিয়ে মালাইকা জানিয়েছিলেন, তিনি নিজেকে নিয়ে খুব আত্মবিশ্বাসী। এবং নিজের মধ্যে আস্থা থাকলে অনেককিছুই পরিবর্তন করা যেতে পারে। চ্যাট শো-তে এসে শ্বশুর বাড়ি নিয়েও অনেক ব্যক্তিগত কথা শেয়ার করেছিলেন মালাইকা। তিনি জানিয়েছিলেন খান পরিবার কখনওই কোনওকিছুর জন্য তাকে চাপ দেয়নি। এবং বিশেষ কিছু করতেও কখনও বাধ্য করেনি।

মালাইকা নিজেও অত্যধিক খোলামেলা স্বভাবের। তবে অতিরিক্ত উন্মুক্ত হওয়াটাই তার শ্বশুরবাড়ির জন্য সমস্যার সৃষ্টি করেছিল। এবং ধীরে ধীরে আরবাজের সঙ্গেও সম্পর্কে ফাটল ধরিয়েছিল।

কখনও স্তনযুগল উন্মুক্ত করে, অনাবৃত উরু দেখিয়ে আবার কখনও নিতম্ব বার করে, ফ্যাশন স্টেটমেন্ট রীতিমতো ঝড় তুলছেন মালাইকা।

সেক্সি ফিগারের এই শরীরী প্রদর্শনের কারণেই কি একে অপরের থেকে বিচ্ছেদ হয়ে যান মালাইকা-আরবাজ।
সালটা ২০১৬। বলি অভিনেতা আরবাজ খানের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়েছেমালাইকার। বর্তমানে তাদের একটি ছেলে রয়েছে। মালাইকা নিজের সঙ্গেই ছেলেকে রেখেছেন।

বর্তমানে দুজনে সম্পর্কে রয়েছেন। বর্তমানে অর্জুন কাপুরের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করছেন মালাইকা। কবে সাতপাকে বাঁধা এই খবরে টিনসেল টাউন সরগরম থাকলে তারা সেভাবে এখনও মুখ খোলেন নি। অন্যদিকে আরবাজ খান মডেল ও নৃত্যশিল্পী জর্জিয়ার সঙ্গে ডেটিং করছেন।

বিচ্ছেদ হলেও পরিবারের প্রতি এখন মন রয়ে গেছে মালাইকার। মালাইকা জানিয়েছিলেন, খান পরিবার অনেক আধুনিক। তিনি যদি আবার জন্মগ্রহণ করেন তাহলে তিনি আবারও খান পরিবারের পূত্রবধূ হতে চান।