কঙ্গনা হারালেন জীবনের প্রিয় মানুষটিকে,শোকের ছায়া রানাওয়াত পরিবারে

চলতি বছর একের পর এক দেখে চলেছে মানুষের মৃত্যু মিছিল৷ বাদ যাচ্ছেন না তারকারাও! আবার অনেকের পরিবারেও নেমে আসছে শোকের ছায়া৷ ঠিক এমনই গতকাল বলি অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের পরিবারেও ঘনিয়ে এল দুঃসংবাদ৷ মানালাতে প্রয়াত হলেন কঙ্গনার ঠাকুরদা৷ টুইটারে এই খবর অভিনেত্রী নিজেই দিলেন৷ গতমাসেই কঙ্গনার পরিবারে এসেছে নতুন সদস্য৷ তার ভাই অক্ষত বসেছিলেন বিয়ের পিঁড়িতে! ধুমধাম করে উদযাপিত হয়েছিল বিয়ের সমস্ত অনুষ্ঠান৷

এই আনন্দের আবহের মধ্যেই খারাপ খবর পেতে হল কঙ্গনা রানাওয়াতকে৷ গতকাল সন্ধ্যেবেলা মানালিতে বাবা—মায়ের কাছে ফিরেছেন কঙ্গনা৷ নিজেই জানিয়েছেন যে তিনি বাড়ি পৌঁছানোর আগেই দাদু পেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন৷ শেষবারের দেখাটুকুও প্রিয় মানুষকে দেখতে পেলেন না অভিনেত্রী৷ এক তীব্র দুঃখ ঘিরে ছিল তাকে,ভারী হৃদয় নিয়ে কালই টুইট করেন,শেয়ার করেন ঠাকুরদার ছবি! লেখেন,”মৃত্যুকালে ওনার বয়স হয়েছিল ৯০বছর৷রসবোধে পরিপূর্ণ মানুষটি এই বয়সেও প্রাণোচ্ছল ছিল ও হাসিখুশি থাকতেন,আমরা সবাই তাকে ড্যাডি বলে ডাকতাম৷ওম শান্তি!”

অভিনেত্রী আরও জানান যে তার ঠাকুরদা ছিলেন একজন আইএএস অফিসার৷ ফলে ছোট থেকেই দেশের জন্য আত্মত্যাগ আর সেবার গল্প শুনেই বড়ো হয়েছেন কঙ্গনা৷ ঠাকুরদা যে বেশ অনেকদিন ধরেই অসুস্থ ছিলেন তাও জানান তিনি৷ সবমিলিয়ে ঠাকুরদা ছিল কঙ্গনার প্রিয় মানুষ,কাছের মানুষ৷ তাকে হারিয়ে স্বাভাবিকভাবেই অভিনেত্রী অত্যন্ত ভেঙে পড়েছেন এবং শোকের অন্ধকার ছেয়ে গেছে তার পরিবারে৷ যদিও এরপরেও এগিয়ে যেতে হবে!

কঙ্গনার হাতে রয়েছে অনেকগুলি বলিউড ছবি৷ থ্যালাইভি,তেজাস সহ তাকে দর্শক দেখতে পাবেন action ছবি “ধাকড়”—এও৷