বলিউড

আলিয়ার ‘নোংরা মন, হিন্দুধর্ম বিরোধী প্রচার বন্ধ করো’! ‘কন্যাদান’ বির্তকে আলিয়াকে কড়া আক্রমণ কঙ্গনা রানাওয়াতের

সম্প্রতি টিভির পর্দায় চোখ রাখলেই দেখা যাবে একটি নামী পোশাক কোম্পানির বিজ্ঞাপন যেখানে দেখা গেছে আলিয়া ভট্টকে। সেই বিজ্ঞাপনে আলিয়া ভট্টের মুখে যে সংলাপ শোনা গেছে সেটি শোনার পরই বলিউডের অন্যতম বিতর্কিত অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের কটাক্ষের সম্মুখীন হয়েছেন ভট্ট কন্যা আলিয়া ভট্ট।

সম্প্রতি এই বিজ্ঞাপন সামনে আসার পর থেকেই নেটিজেনদের কাছে চরম ট্রোল হন অভিনেত্রী আলিয়া ভট্ট। আর সেই ট্রোলিং আরো বাড়িয়ে দিয়েছে কঙ্গনা রানাওয়াতের মন্তব্য। এই বিজ্ঞাপনে পুরুষতান্ত্রিক সমাজের বিরুদ্ধে একটি বার্তা ছিল। এই বার্তা হিন্দু সমাজের নিয়মকে অসন্মান করছে বলেই ধারণা সিংহভাগ নেটিজেনদের।

হিন্দুদের বিয়ের একটি এই বিজ্ঞাপনে আলিয়া ভট্টের মুখে যে সংলাপ শোনা গেছে সেটি হল- “সবাই বলে মেয়েরা পরের ধন, কিন্তু সে না কোনও ধন কিংবা না অন্য কারও! আসলে কন্যা কোনও দানের বস্তু নয়। তাই কন্যাদান নয়, বলতে শিখুন কন্যামান!”

তারকা সন্তানদের কঙ্গনা রানাওয়াত কোনদিনই ভালো চোখে দেখেন না। এই বিজ্ঞাপন সামনে আসার পর থেকেই সকল নেটিজেনদের পাশাপাশি কঙ্গনা রানাওয়াত দাবি করেছেন আলিয়া ভট্ট হিন্দু ধর্ম বিরোধী। এই প্রসঙ্গে কঙ্গনা রানাওয়াত সোশ্যাল মিডিয়ায় এই পোশাকের ব্রান্ডকেও কম কথা শোনাননি। তিনি লিখেছেন, “সরল, সাদাসিধে খদ্দেরদের ভোলাতে ধর্মকে হাতিয়ার করবেন না।

হিন্দুত্ব ভীষণ স্পর্শকাতর এবং বৈজ্ঞানিক। আমাদের বৈবাহিক রীতিতে একজন নারী তাঁর নিজের রক্তের সম্পর্ক, গোত্র ছেড়ে অন্য পরিবারে প্রবেশ করে। যার জন্য শুধু পিতা না, পূর্বপুরুষদের কাছ থেকেও অনুমতি নিতে হয় তাকে। যাঁদের রক্ত সেই নারীর শরীরে বইছে। আর মেয়ের নতুন জীবনের যাত্রার জন্য পিতাও তাকে অনুমতি দেন।”

এই বিজ্ঞাপন সামনে আসার পর পোশাকের কোম্পানিকে কথা শোনানোর পাশাপাশি নাম না করে ইঙ্গিতপূর্ণ কিছু কথা বলেছেন আলিয়া ভট্টের বিরুদ্ধে। তিনি লিখেছেন, “ধন শব্দটা আদতে নোংরা নয়। এই শব্দ বহু প্রচলিত। নোংরা আসলে তোমার মন। কন্যা ধন কিংবা পরের ধন বলা মানে এই নয় যে তুমি তোমার মেয়েকে বিক্রি করছ.. তাই হিন্দুধর্ম বিরোধী প্রচার বন্ধ করো।” এই বিজ্ঞাপন হিন্দু ধর্মকে অসন্মান করছে। তাই এই ধরণের বিজ্ঞাপনকে বয়কট করে তাদের চুপ করিয়ে দেওয়ার বার্তা দিতে দেখা কঙ্গনা রানাওয়াতকে।

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Kangana Thalaivii (@kanganaranaut)

 

View this post on Instagram

 

A post shared by Kangana Thalaivii (@kanganaranaut)

Back to top button