বলিউড

রাজনীতিতে যোগ দিতে চলেছেন কঙ্গনা রানাওয়াত! অভিনেত্রীর মন্তব্যে জোরাল জল্পনা

কোন না কোন কারণে বলিউডের অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত মানুষের মধ্যে চর্চায় থাকেন। তিনি নিজের মন্তব্যের জন্য বারে বারে নেটিজেনদের সমালোচনার সম্মুখীন হন।

তবে সেই সমস্ত সমালোচনাকে বিশেষ পাত্তা দেননা অভিনেত্রী। আবার অনেক সময় তুমুল সমালোচনার মুখে পড়ে তার যোগ্য জবাব দিয়ে দেন বলিউডের এই ঠোঁটকাটা অভিনেত্রী। তার সাথে বিরোধ অনেক বলি তারকারও।

চলতি মাসে তামিলনাড়ুর প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জয়ললিতার বায়োপিক ‘থালাইভি’ মুক্তি পেয়েছে। এই ছবিতে কঙ্গনা রানাওয়াত মুখ্য ভূমিকায় অভিনয় করেছেন। ট্রেলার মুক্তি পাওয়ার পর থেকেই এই ছবি নিয়ে শোরগোল পড়ে গেছে দর্শকমহলে। এদিন এই ছবির প্রচারে দিল্লিতে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের সাথে বৈঠকও করেছেন।

দিল্লিতে সাংবাদিকদের সাথে বৈঠকে অভিনেত্রীকে রাজনীতি নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “আমি জাতীয়তাবাদী এবং দেশের স্বার্থে নানা বিষয়ে কথা বলি। আর মানুষজন ভাবেন আমি রাজনৈতিক বিষয়ে কথা বলছি। রাজনীতি আমার জন্য নয়, কারণ আমি রাজনীতিবিদ নই।

আমি দেশের একজন দায়িত্বশীল নাগরিক হিসেবে কথা বলি। এমন একজন নাগরিক যাকে দেশবাসী তারকা তকমা দিয়েছেন। তাই আমি দেশবাসীর অধিকারের জন্য কথা বলি। আমি রাজনীতিতে যোগ দেব কী না, সেই সিদ্ধান্ত আমার হাতে নেই। মানুষের সাপোর্ট ছাড়া আপনি পঞ্চায়েত নির্বাচনও জিততে পারবেন না।

মানুষ যদি চান অথবা আমি যদি মনি করি যে আমার সেই সামর্থ্য আছে তবেই রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার কথা ভাবব। আপাতত আমি অভিনেত্রী হিসেবেই খুশি। তবে ভবিষ্যতে যদি মানুষ আমায় চান, নির্বাচিত করেন। তাহলে সিদ্ধান্ত নেওয়া যেতেই পারে।”

এই ধরনের মন্তব্য করার পর থেকেই আবারও অভিনেত্রী তুমুল সমালোচনার সম্মুখীন হন। তার বক্তব্য শুনে নেটিজেনদের মধ্যে অনেকেই অনেক ধরনের মন্তব্য করেছেন অভিনেত্রীর উদ্দেশ্যে। তবে অভিনেত্রী প্রতিবারের মতোই এবারও বিশেষ কর্ণপাত করেননি সেই সমস্ত মন্তব্যে। কঙ্গনা রানাওয়াত একজন প্রতিবাদী অভিনেত্রী। তিনি যেকোনো বিষয়ে মুখের উপর জবাব দিতে ভয় পাননা। এক্ষেত্রেও তিনি সাংবাদিকদের প্রশ্নের সরাসরি উত্তর দিয়েছেন।

Back to top button